শেষ আটেই রিয়ালের মুখোমুখি হতে পারেন রোনালদো, বার্সার পথও সহজ নয়

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫০ পিএম, ১০ জুলাই ২০২০

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলের এখনও দ্বিতীয় রাউন্ডের চারটি ম্যাচ বাকি। এই চার ম্যাচ পরই নির্ধারণ হবে, কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে কারা কারা। যদিও এরই মধ্যে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম লেগের ফল অনুসারে এখনও বিদায় নেয়ার শঙ্কায় রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং জুভেন্টাসের মত দলগুলো।

তবুও করোনা ভাইরাসের মত কঠিন পরিস্থিতিতে যখন ফুটবলই মাঠ থেকে উঠে গিয়েছিল, তখন কোনোভাবে পরিবেশ বান্ধব পরিস্থিতিতে মাঠে ফুটবল ফিরিয়ে আনার পর এখন ইউরোপীয় ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা উয়েফাও চাচ্ছে, যে কোনোভাবে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগটা শেষ করা। এ জন্য পর্তুগালের রাজধানী লিসবনকেই নির্ধারণ করা হয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচগুলো শেষ করার জন্য।

সুতরাং, দ্বিতীয় রাউন্ড পুরোপুরি শেষ না হলেও এরই মধ্যে কোয়ার্টার ফাইনালের ড্র করে ফেলেছে উয়েফা। শুধু কোয়ার্টার ফাইনালই নয়, সেমিফাইনালের ড্র’ও তারা করে ফেলেছে।

তাতেই দেখা যাচ্ছে কোয়ার্টার ফাইনালে নিজের প্রিয় এবং পুরনো ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যদি তার দল (জুভেন্টাস) কোয়ার্টারে ওঠে, তাহলে মুখোমুখি হবে ম্যানচেস্টার সিটি এবং রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যে যারা কোয়ার্টারে উঠবে, তাদের। সে ক্ষেত্রে রিয়াল মাদ্রিদ হলে, নিজের রাজধানী শহরে রোনালদোকে খেলতে হবে জিদানদের বিপক্ষে।

তবে, তার আগে দ্বিতীয় রাউন্ডের ফিরতি লেগের ম্যাচ খেলতে হবে রিয়াল মাদ্রিদ এবং ম্যানচেস্টার সিটিকে। প্রথম লেগে রিয়ালের মাঠ থেকে ২-১ ব্যবধানে জয় তুলে নিয়ে গিয়েছিল পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। দ্বিতীয় ম্যাচ নিজেদের মাঠেই রিয়ালকে মোকাবেলা করবে ম্যানসিটি। ৭ কিংবা ৮ই আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।

UCL

তবে রোনালদোর ক্লাব জুভেন্টাসও রয়েছে বিপদে। প্রথম লেগে ফরাসি ক্লাব লিওঁর মাঠে গিয়ে ১-০ গোলে হেরে এসেছে রোনালদোরা। দ্বিতীয় লেগে যদি লিওঁকে উল্লেখযোগ্য ব্যবধানে হারাতে পারে, তবেই কোয়ার্টারে খেলবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দল। সে ক্ষেত্রে তাদের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রিয়াল কিংবা ম্যানসিটির।

বিপদে আছে বার্সাও। প্রথম লেগে ন্যাপোলির মাঠে খেলতে গিয়ে ১-১ গোলে ড্র করে এসেছে লিওনেল মেসির দল। এবার ৭ কিংবা ৮ আগস্ট ন্যু ক্যাম্পে যদি ন্যাপোলিকে হারাতে পারে বার্সা, তাহলে কোয়ার্টারে উঠে কঠিন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হতে পারে তারা। কারণ, সেখানে অপেক্ষা করছে বায়ার্ন মিউনিখ কিংবা চেলসি।

যদিও এ ক্ষেত্রে চেলসি অনেকটাই পিছিয়ে। বায়ার্ন নিজেদের মাঠে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাবটিকে হারিয়েছে ৩-০ গোলের ব্যবধানে। সুতরাং, বার্সা কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ বায়ার্নকেই পাচ্ছে।

এছাড়া কোয়ার্টার ফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে আরবি লেইপজিগকে পেয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। নেইমার-এমবাপেদের দল পিএসজি পেয়েছে ইতালিয়ান ক্লাব আটলান্টাকে।

প্রসঙ্গতঃ করোনার কারণে পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ১২ থেকে ২৩ আগস্টের মধ্যে লিসবনে কোয়ার্টার থেকে ফাইনাল পর্যন্ত আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে উয়েফার। সে কারণে, কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে এবারের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে সিঙ্গেল লেগে। অর্থ্যাৎ, বিশ্বকাপের মত করে। আগের হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে পদ্ধতিতে নয়।

দ্বিতীয় রাউন্ডে ম্যাচ বাকি
চেলসি (০) : বায়ার্ন মিউনিখ (৩)
ন্যাপোলি (১) : বার্সেলোনা (১)
রিয়াল মাদ্রিদ (১) : ম্যানচেস্টার সিটি (২)
লিওঁ (১) : জুভেন্টাস (০)

কোয়ার্টার ফাইনাল
রিয়াল মাদ্রিদ/ম্যানসিটি : লিওঁ/জুভেন্টাস
আরবি লেইপজি : অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ
ন্যাপোলি/বার্সেলোনা : চেলসি/বায়ার্ন মিউনিখ
আটলান্টা : পিএসজি

সেমিফাইনাল
রিয়াল মাদ্রিদ/ম্যানসিটি/লিওঁ/জুভেন্টাস : ন্যাপোলি/বার্সেলোনা/চেলসি/বায়ার্ন মিউনিখ
আরবি লেইপজি/অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ : আটলান্টা/পিএসজি

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]