নেইমারকে নিয়ে আরও একটি মামলা জিতলো বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ১০ জুলাই ২০২০

২০১৩ সালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোস ছেড়ে যখন স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনায় নাম লেখান নেইমার ডি সিলভা জুনিয়র, তখন থেকেই একটা বিতর্ক সারাক্ষণ তার পিছু লেগেছিল। সান্তোস থেকে নেইমারের রিলিজ ক্লজেই নাকি যে শর্ত দেয়া ছিল, সে শর্ত অনুসারে স্প্যানিশ জায়ান্টদের কাছে ব্রাজিলিয়ান ক্লাবটির পাওনা ৬১.৩ মিলিয়ন ইউরো (প্রায় ৫৮৯ কোটি টাকা)।

এই অর্থ দাবি করে সান্তোস মামলা করে বসে ক্রীড়া সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক আদালত কোর্ট অব আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস)। কিন্ত সিএএস সান্তোসের সেই মামলা পুরোপুরি খারিজ করে দিয়ে বিশাল এই অংকের দাবি থেকে খালাস করে দিলো বার্সেলোনাকে।

সিএএস এই বলে রায় দিয়েছে যে, খেলোয়াড় (নেইমার) তার সাবেক ক্লাবের সঙ্গে সমঝোতার ভিত্তিতে চুক্তি সম্পন্ন করে অন্য ক্লাবে যোগ দিয়েছে। সুতরাং, কাতালান ক্লাবটি কোনো কারণেই আর নেইমারের বাবা (নেইমারের এজেন্ট তিনি) কিংবা এন অ্যান্ড এন কোম্পানিকে কোনো অর্থ দিতে বাধ্য নয়।

একই সঙ্গে নেইমারের পক্ষকে স্বীকার করতে হয়েছে যে, সান্তোস থেকে যখন তিনি বার্সায় যোগ দেন, তখন চুক্তি বহির্ভূত কোনো লেন-দেন হয়নি কিংবা আলাদা গোপন চুক্তি হয়নি। একই সঙ্গে সিএএস সান্তোস ক্লাবকে নির্দেশ দিয়েছে, মামলা পরিচালনার জন্য বার্সার যে খরচ হয়েছে তা মেটানোর জন্য ১৮ হাজার ইউরো প্রদান করতে হবে।

এর আগে নেইমার সম্পর্কিত আরও একটি মামলায় জিতেছিল বার্সেলোনা। ২০১৭ সালে পিএসজিতে যাওয়ার আগে যে চুক্তি বার্সার সঙ্গে করেছিলেন নেইমার, সেটার সঙ্গে সাইনিং বোনাস হিসেবে ৪৩.৬ মিলিয়ন ইউরো দাবি করেছিলেন তিনি। সে জন্য আদালতের স্মরণাপন্ন হন নেইমার। কিন্তু আদালত তার আবেদন বাতিল করে উল্টো নেইমারকে নির্দেশ দেয়, বার্সাকে ৬.৭ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করার জন্য।

নেইমার সম্পর্কে সিএসএ যে রায় দিয়েছে, সেটা গ্রহণ করে নিয়েছে সান্তোস। ক্লাবটির পক্ষ থেকে বলা হয়, সান্তোস খুব সম্মানের সঙ্গে এই সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে এবং প্রশ্নাতীতভাবে তা গ্রহণ করে নিচ্ছে।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]