বাসেলকে চূর্ণ করে শাখতার, উলভসকে হারিয়ে সেমিতে সেভিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১২ পিএম, ১২ আগস্ট ২০২০

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল শুরুর আগেই নির্ধারিত হয়ে গেলো ইউরোপা লিগে সেমিফাইনালের লাইনআপ। মঙ্গলবার রাতে ছিল শেষ দুটি কোয়ার্টার ফাইনাল। যার একটিতে সুইস ফুটবল ক্লাব এফসি বাসেলকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে চূর্ণ করে সেমিতে পা রেখেছে ইউক্রেনিয়ান ফুটবল ক্লাব শাখতার দোনেৎস্ক।

অন্য ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স এবং স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়া। ম্যাচটি গড়াতে যাচ্ছেল অতিরিক্ত সময়ের দিকে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে অপেক্ষার যন্ত্রণা থেকে দর্শকদের মুক্তি দেন সেভিয়ার ফুটবলার লুকাস ওকাম্পোজ। ৮৮তম মিনিটে করা তার গোলেই সেমির টিকিট পেয়ে যায় সেভিয়া।

সেমিফাইনালে শাখতার দোনেৎস্ক মুখোমুখি হবে ইতালিয়ান জায়ান্ট ইন্টার মিলানের। অন্যদিকে স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়াকে মুখোমুখি হতে হবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আরেক জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের।

jagonews24

জার্মানিতে অনুষ্ঠিত মঙ্গলবার রাতে শাখতার বলতে গেলে উড়িয়ে দিয়েছে এফসি বাসেলকে। ম্যাচের শুরুতেই, দ্বিতীয় মিনিটে গোলের সূচনা করেন মোরায়েজ। এর ২০ মিনিট পর গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন টাইসন।

এ অবস্থায় শেষ হয় প্রথমার্ধ। দ্বিতীয়ার্ধও প্রায় ২-০ তে শেষ হতে যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে যেন আবারও জ্বলে উঠে শাখতার। ৭৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন অ্যালান প্যাট্রিক। ৮৮ মিনিটে বাসেলের পরাজয়ের কফিনে শেষ পেরেট ঠুকে দেন ডোডো। খেলার শেষ বাঁশি বাজার ঠিক আগ মুহূর্তে একটি গোল শোধ করেন আসেলের রিকি ফন উলফসউইঙ্কেল।

জার্মানির অন্য মাঠ এমএসভি এরেনায় উলভারহ্যাম্পন আর সেভিয়া লড়ছিল সমানতালে। কেউ কারো নেট খুঁজে পাচ্ছিল না। কিন্তু শেষ পর্যন্ত খেলার ৮৮ মিনিটে গোল করে সেভিয়াকে অসাধারণ জয় উপহার দেন লুকাস ওকাম্পোজ।

আইএইচএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]