আইনি লড়াইয়ে জিতলেন মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৫ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

নয় বছরের আইনি লড়াইয়ে অবশেষে জয়ের মুখ দেখলেন লিওনেল মেসি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) শীর্ষ আদালত রায় দিয়েছে, আর্জেন্টাইন খুদেরাজ নিজের নামকে এখন থেকে ‘ট্রেডমার্ক’ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। খবর বিবিসির।

সেই ২০১১ সালে স্পোর্টসওয়ার ব্র্যান্ড হিসেবে নিজের ডাকনাম ব্যবহার করার আবেদন জানিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু এখানে ঝামেলা বাঁধায় একটি স্প্যানিশ সাইক্লিং ব্র্যান্ড ‘ম্যাসি’ (massi)। ইংরেজিতে নামের বানানে ভিন্নতা থাকলেও (মেসির নামের বানান messi ) উচ্চারণে মিল থাকায় বিভ্রান্তি তৈরি হতে পারে এমন যুক্তিতে মেসির আবেদন চ্যালেঞ্জ করেছিল ব্র্যান্ডটি।

প্রাথমিকভাবে ‘ম্যাসি’ নামের ব্র্যান্ডটি এই চ্যালেঞ্জে সফলও হয়েছিল। কিন্তু পরে মেসি এই ব্যাপারটা ফৌজদারি আদালত পর্যন্ত নিয়ে যান। পরে ‘দ্য ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিস’-এ আপিল করার পর এবারের রায়ও এলো বার্সা অধিনায়কের পক্ষেই।

ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিস বলেছে, তারকা এই ফুটবলারের খ্যাতির বিষয়টি বিবেচনায় আনলেই বোঝা যায় সাধারণ মানুষ দুই ব্র্যান্ডের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারবেন কি না। সেই প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালে ইইউ’র ফৌজদারি আলাদতে তোলা চ্যালেঞ্জটি খারিজ করে দেয়া হয়।

এই রায়ের ফলে নিজের নাম ‘ট্রেডমার্ক’ হিসেবে ব্যবহার করতে আর বাধা রইল না আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের। যে কোনো ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে নিজের নাম এখন থেকে ব্যবহার করতে পারবেন ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা।

সম্প্রতি ৩৩ বছর বয়সী মেসি আরও একবার আদালতে যাওয়ার অবস্থা হয়েছিল বার্সেলোনার সঙ্গে রিলিজ ক্লজের ঝামেলায়। তবে যে ক্লাবে ছোট থেকে বড় হয়েছেন, সেই ক্লাবের বিরুদ্ধে লড়ার পথে না গিয়ে আরও এক মৌসুম থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বসেরা এই ফুটবলার।

এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]