তিন গোলে পিছিয়ে পড়েও চেলসির অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তন

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৭ এএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

ইউরোপিয়ান ফুটবলে শনিবার রাতটি বড় দলগুলোর জন্য ছিল খুবই সৌভাগ্যময়। স্প্যানিশ লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড পয়েন্ট হারানোর দ্বারপ্রান্তে থেকেও নাটকীয়ভাবে জিতেছে তাদের ম্যাচ। রিয়াল ও ম্যানইউর মতো জয় না পেলেও, অবিশ্বাস্যভাবে হার এড়িয়েছে ইংল্যান্ডের আরেক বড় দল চেলসি।

দলবদলের মৌসুমে তারকা খেলোয়াড়দের দলে ভিড়িয়ে বড় চমক দেখানোর আভাসই দিয়েছিল চেলসি। কিন্তু মাঠের খেলায় যেন এর ছাপ খুব অল্পই। নতুন মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ব্রাইটনকে হারালেও, দ্বিতীয় ম্যাচে তারা হেরে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের কাছে। তৃতীয় ম্যাচে পুঁচকে ওয়েস্ট ব্রুমও দিয়েছিল চোখরাঙানি। তবে শেষ সময়ের গোলে কোনোমতে হার এড়িয়েছে ব্লুজরা।

শনিবার রাতের ম্যাচটিতে মাত্র ২৭ মিনিটের মধ্যেই তিন গোলের লিড নিয়েছিল স্বাগতিক ওয়েস্ট ব্রুম। তবে দ্বিতীয়ার্ধে তিনটি গোলই ফেরত দিয়েছে চেলসি। এর মধ্যে শেষটি আবার ছিল ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজার ঠিক আগমুহূর্তে। অবিশ্বাস্য এ প্রত্যাবর্তনে কোনোমতে এক পয়েন্ট নিয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছে ফ্র্যাঙ্ক ল্যামপার্ডের শিষ্যরা।

ম্যাচের চতুর্থ মিনিটের সময় দলকে এগিয়ে দেন ওয়েস্ট ব্রুমের ইংলিশ ফরোয়ার্ড ক্যালাম রবিনসন। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ম্যাথিউস পেরেইরার বাড়ানো বল ধরে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান ২৫ বছর বয়সী রবিনসন। ম্যাচের ২৫ মিনিটের সময় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তিনিই। থিয়াগো সিলভার হাস্যকর ভুলে বল পেয়ে জাল কাঁপান রবিনসন।

মাত্র ২৫ মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল হজম করে তখন ছন্নছাড়া চেলসি। এ সুযোগটি কাজে লাগান কাইল বার্টলি। ম্যাচের ২৭ মিনিটের মাথায় কর্নার থেকে হেড করেন ডারনেল ফুরলং। সেই বল ফাঁকায় পেয়ে যান বার্টলি। সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেননি এই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার। দলকে এগিয়ে দেন ৩-০ ব্যবধানে। অথচ ম্যাচের আয়ু তখন মাত্র ২৭ মিনিট।

প্রথমার্ধে আর কোনো গোল করতে পারেনি ওয়েস্ট ব্রুম, চেলসিও পারেনি গোল ফেরত দিতে। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ম্যাচের ৫৫ মিনিটের সময় প্রথম গোল শোধ করেন ম্যাসন মাউন্ট। এর ১৫ মিনিট পর চেলসির হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন ক্যালাম হাডসন। তখনও পরাজয়ের শঙ্কা পুরোপুরি দূর হয়নি চেলসির। জিততে করতে হতো দুই গোল আর হার এড়াতে অন্তত একটি।

দুইটি করতে পারেনি চেলসি। তবে ম্যাচের অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ট্যামি আব্রাহামের গোলে অবশেষে সমতা ফেরাতে পেরেছে দলটি। কাই হ্যাভার্টজের শট ফিরিয়েছিলেন ওয়েস্ট ব্রুম গোলরক্ষক। কিন্তু বিপদমুক্ত হয়নি। ফাঁকায় বল পেয়ে আলতো টোকায় সেটি জালে জড়ান আব্রাহাম। কষ্টার্জিত এক পয়েন্ট পায় চেলসি।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]mail.com