বিতর্কিত পেনাল্টিতে জয় হাতছাড়া লিভারপুলের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৭ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২০

লিভারপুলের জন্য আবারও ভিলেন হয়ে দেখা দিল ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর)। শনিবার ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ আলবিয়নের বিরুদ্ধে জেতা ম্যাচ শেষ মুহূর্তের বিতর্কিত পেনল্টিতে ড্র করে আসতে হল বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের।

দিয়োগো জোটার গোলে এদিন দ্বিতীয়ার্ধে এগিয়ে যায় অলরেডস’রা; কিন্তু নির্ধারিত সময়ের একেবারে অন্তিম মিনিটে প্রতিপক্ষকে পেনাল্টি দিয়ে বসে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে ঘরের মাঠে পয়েন্ট ভাগ করে নেয় ব্রাইটন।

বক্সের মধ্যে ব্রাইটনের ড্যানি ওয়েলব্যাককে লাথি দিয়ে বসেন অ্যান্ডি রবার্টসন। এরপর ভিএআরের স্মরণাপন্ন হন রেফারি। সেখান থেকেই আসলো পেনাল্টি সিদ্ধান্ত। প্যাসকেল গ্রোস ৯০+৩ মিনিটে স্পট কিক থেকে গোল করে পয়েন্ট কেড়ে নেন লিভারপুলের।

যদিও প্রথমার্ধে আরও একটি পেনাল্টি পেয়েছিল স্বাগতিকরা; কিন্তু সে যাত্রায় স্পটকিক থেকে নিয়াল মৌপে পোস্টের বাইরে শট মেরে দিলে গোল বঞ্চিত হয় ব্রাইটন। না হয়, পূর্ণ পয়েন্ট নিয়েই হয়তো মাঠ ছাড়তে পারতো তারা।

সপ্তাহের শুরুতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আটলান্টার কাছে অবাক করা হারের পর শনিবার জয়ের খোঁজে মাঠে নেমেছিল ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা। যদিও তিনদিনের ব্যবধানে ম্যাচ খেলতে নামায় মোটেও খুশি ছিলেন না লিভারপুল কোচ।

আটলান্টা ম্যাচের একাদশে এদিন ছয়টি পরিবর্তন আনেন তিনি। পুরো ম্যাচে তিনটি ক্ষেত্রে ভিএআর লিভারপুলের বিরুদ্ধে যায়। যার মধ্যে একটি প্রথমার্ধে। ৩৩ মিনিটে মোহামেদ সালাহর একটি গোল অফসাইডের জন্য বাতিল হয়। পেনাল্টি নষ্টের পর প্রথমার্ধে আর সেই অর্থে গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেনি ব্রাইটনও। সবমিলিয়ে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যভাবে।

এরপর দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুলকে এগিয়ে দেন দিয়োগো জোটা। ৬০ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে সালাহর ছোট্ট পাস ধরে ব্যবধান ১-০ করেন পর্তুগিজ এই স্ট্রাইকার।

৭৪ মিনিটে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় লিভারপুল মিডফিল্ডার জেমস মিলনারকে। ৮৩ মিনিটে ম্যাচে দ্বিতীয়বার ভিএআরের কারণে বাতিল হয় লিভারপুলের আরেকটি গোল। অ্যান্ডি রবার্টসনের ফ্রি-কিক থেকে হেডে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন সাদিও মানে। অথচ ভিএআরের কল্যাণে দ্বিতীয়বার অফসাইডের কারণে বাতিল হয় সেটি।

এরপর একমাত্র গোলে লিভারপুলের জয় যখন মোটামুটি নিশ্চিত, ঠিক তখনই অলরেড শিবিরে আবারও ভিলেন হয়ে দেখা দেয় ভিএআর। নির্ধারিত সময়ের একেবারে অন্তিম মুহূর্তে লিভারপুল পেনাল্টি বক্সে রবার্টসন একটি বল ক্লিয়ার করতে গেলে ব্রাইটন স্ট্রাইকার ড্যানি ওয়েলবেকের পায়ে আঘাত করে বসেন।

আপাতদৃষ্টিতে নেহাতই সামান্য মনে হলেও এই ঘটনা লিভারপুলের বিপক্ষে যায়। প্রাথমিকভাবে এই ঘটনা নজর এড়িয়ে গেলেও ভিএআরের সাহায্য নিয়ে ব্রাইটনের পক্ষে পেনাল্টির নির্দেশ দেন রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান পাস্কেল।

এই ড্রয়ের ফলে ১০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে লিভারপুল লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকলেও রোববার (আজ) চেলসি বনাম টটেনহ্যামের লড়াইয়ে যে দল জিতবে তারা চলে যাবে শীর্ষে।

আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]