দোহায় জামালদের অনুপ্রেরণা হতে পারে ‘জাকার্তা’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:১৫ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক ফুটবলে যে কয়টি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের সুসম্পর্ক, তার মধ্যে অন্যতম কাতার। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে সখ্যতার জের ধরেই করোনাকালে স্থগিত বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচটি অগ্রীম খেলে ফেলছে বাংলাদেশ। শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় কাতারের দোহার আবদুল্লাহ বিন খলিফা স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই দেশের ফিরতি ম্যাচটি।

প্রথম ম্যাচ হয়েছিল গত বছর অক্টোবরে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। কাতার ২-০ গোলে জিতলেও তাদের ঘাম ঝরাতে হয়েছিল। এবার ঘরের মাঠে কাতার কতটা নিষ্ঠুর হয়ে ওঠে, সেটাই ভয়।

যদিও কাতারের বিপক্ষে বাংলাদেশের একটি মধুর অভিজ্ঞতা আছে গত এশিয়ান গেমসে। ২০১৮ সালে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায় এশিয়ান গেমস ফুটবলে (অনূর্ধ্ব-২৩) কাতারকে ১-০ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো গ্রুপ পর্ব টপকে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছিল বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচের সঙ্গে এশিয়ান গেমস ফুটবলের তুলনা চলে না। তারপরও কাতারের বিপক্ষে জয় মানেই অন্যরকম প্রাপ্তি। সেই মধুর স্মৃতিটা অনুপ্রেরণা হতেও পারে দোহার ম্যাচে।

এশিয়ান গেমস ফুটবলে বাংলাদেশের জয়টা এসেছিল শেষ মুহূর্তের গোলে। অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া ৯৩ মিনিটে গোল করে স্তব্ধ করে দিয়েছিল কাতারকে। সেই জামাল ভূঁইয়ার নেতৃত্বেই শুক্রবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ফিরতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

শক্তিতে দুই দলের বিস্তর পার্থক্য। কাতার এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন, খেলবে ২০২২ বিশ্বকাপে। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি ১২৫ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের চেয়ে। অসম শক্তির বিরুদ্ধে বাংলাদেশের লড়াইটা হতে পারে গোল কম খাওয়ার। বলেই দেয়া যায়, বাংলাদেশের রক্ষণে ‘মরুঝড়’ বইয়ে দেবে কাতার। সেই ঝড় কিভাবে সামলাবে বাংলাদেশ, সেটাই দেখার।

এশিয়ান গেমসে জয় আর ঢাকায় বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচে দারুণ খেলে হার-এই দুই ম্যাচ কিন্তু বাংলাদেশের ফুটবলারদের মনে সাহসের জ্বালানি হিসেবে কাজ করবে। তাই তো ম্যাচের আগের দিন বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া সাহস করে ড্রয়ের লক্ষ্যের কথা বলেই ফেললেন, ‘কাতার অনেক শক্তিশালী দল। তবে আমাদের লক্ষ্য এক পয়েন্ট। ড্র করতে পারলে সেটা হবে বিশাল অর্জন।’

আরআই/এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]