অবশেষে গোল পেলেন কিংসের স্থানীয় কোনো ফুটবলার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:২৬ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

একটি টুর্নামেন্ট পার করে অবশেষে গোলের মুখ দেখলেন বসুন্ধরা কিংসের কোনো স্থানীয় ফুটবলার। সর্বশেষ জাতীয় দলে এই ক্লাবের ১০ ফুটবলার থাকলেও কারো কাছ থেকে দর্শক গোল দেখেনি ফেডারেশন কাপে। একটি ক্লাব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে অথচ স্থানীয় কারো গোল নেই- বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলে এটি নজিরবিহীন ঘটনা।

ফেডারেশন কাপ জিততে বসুন্ধরা করেছে ১০ গোল। ৫টি আর্জেন্টানাইন রাউল অস্কার বেচেরার, দুটি করে ব্রাজিলের জোনাথন ফার্নান্দেজ ও রবসন সিলভার। আরেকটি গোল তদের প্রতিপক্ষের আত্মঘাতি। সেটাও করেছেন একজন বিদেশি- রহমতগঞ্জের মিশরীয় নসর ঈশা।

স্থানীয় কোনো ফুটবলারের গোল না পাওয়ায় লন্ডন থেকেই হতাশা প্রকাশ করেছিলেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ জেমি ডে। তিনি যখন ঢাকায় ফেরার জন্য আকাশে, তখন তারই এক শীর্ষ মো. ইব্রাহিম বসুন্ধরা কিংসের প্রথম স্থানীয় ফুটবলার হিসেবে গোল করেছেন প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধনী ম্যাচে উত্তর বারিধারা ক্লাবের বিরুদ্ধে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গতবারের চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস ২-০ গোলে হারিয়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে। প্রথম গোলটি করেছেন আর্জেন্টাইন রাউল অস্কার ৪৫ মিনিটে। ৫৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেছেন ইব্রাহিম।

সদ্য ফেডারেশন কাপ জেতা বসুন্ধরা কিংসের লিগের প্রথম ম্যাচটি অবশ্য মন ভরাতে পারেনি দর্শকদের। তুলনামূলক উত্তর বারিধারা অনেক ভালো ফুটবল খেলেছে। গোলরক্ষের ভুলে প্রথম গোল হজম করেছে তারা। দ্বিতীয় গোলের সময় ইব্রাহিম অফসাইডে ছিলেন বলে অনেকে বলাবলি করছিলেন।

তারপরও ফেডারেশন কাপের ট্রফি জয়ের তিন দিনের মাথায় লিগ শুরু করে পূর্ন পয়েন্ট নিয়েই শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু করেছে বসুন্ধরা কিংস। লিগের লম্বা পথচলা তারা শুরু করলো জয়ের আনন্দ নিয়েই।

আরআই/আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]