দুইবার এগিয়ে গিয়েও হার, আশা প্রায় শেষ মেসিদের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৫ এএম, ১২ মে ২০২১

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তিন ম্যাচ হাতে রেখে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে ম্যানচেস্টার সিটি। আর অন্যদিকে স্প্যানিশ লা লিগায় শিরোপার জন্য লড়ছে চারটি ভিন্ন ক্লাব। তবে এ দফায় শিরোপা সম্ভাবনা প্রায় ফিকে হয়ে গেলো কাতালান ক্লাব বার্সেলোনার।

মঙ্গলবার রাতে লেভান্তের মাঠে খেলতে গিয়ে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে বার্সেলোনা। ম্যাচে দুইবার লিড নিয়েও, শেষ পর্যন্ত ফলাফল নিজেদের পক্ষে রাখতে পারেনি তারা। যার ফলে লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নে ধাক্কা লেগেছে জোরেশোরে। এখন লিগের শেষ দুই ম্যাচ জিতলেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম লিওনেল মেসিদের।

লিগের ৩৬তম রাউন্ডের ম্যাচটিতে প্রথমার্ধেই জোড়া গোল করে বার্সা। ম্যাচের মাত্র ২৫ মিনিটের মাথায় মেসির নৈপুণ্যে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। বাম পাশ থেকে দিক থেকে জর্দি আলবার ক্রসে বল পান আর্জেন্টাইন তারকা। প্রায় শুয়ে পড়ে বাম পায়ের ভলিতে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন অধিনায়ক মেসি।

চলতি লিগের মেসির এটি ২৯তম গোল। তিনিই সর্বোচ্চ গোলদাতা। দুই নম্বরে থাকা করিম বেনজেমার গোল ২১টি। মেসির গোলের নয় মিনিটের মধ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তরুণ প্রতিভাবান পেদ্রি। ওসুমানে দেম্বেলের এসিস্ট থেকে স্কোরশিটে নাম তোলেন তিনি।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে তালগোল পাকিয়ে ফেলে কাতালান ক্লাবটি। তিন মিনিটের দুই গোল করে সমতা ফেরায় লেভান্তে। প্রথমে ৫৭ মিনিটের সময় গোল করেন মেলেরো। এর দুই মিনিট পর সমতাসূচক গোল করেন মোরালেস। ফলে বড়সড় ধাক্কাই খায় বার্সেলোনা।

অবশ্য তারা দ্বিতীয়বারের মতো লিড নিতে পাঁচ মিনিটও সময় নষ্ট করেনি। ম্যাচের ৬৪ মিনিটের সময় গোল উৎসবে যোগ দেন দেম্বেলে। কিন্তু ম্যাচের ৮৩ মিনিটের মাথায় বার্সার জেতার আশা শেষ করে দেন সার্জিও লিওন। তার গোলে স্কোরলাইন হয় ৩-৩, ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় কাতালানদের।

এই ড্রয়ের পর ৩৬ ম্যাচ শেষে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুই নম্বরে অবস্থান করছে বার্সেলোনা। শীর্ষে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ঝুলিতে রয়েছে ৩৫ ম্যাচে ৭৭ পয়েন্ট। অন্যদিকে তিন নম্বরে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ ৩৫ ম্যাচ থেকে সংগ্রহ করেছে ৭৫ পয়েন্ট।

এসএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]