‘জাতীয় দলের জার্সিতে শততম ম্যাচ খেলতে চাই’

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ০১ জুন ২০২১

বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে নামবে বাংলাদেশ। সবকিছু ঠিক থাকলে দোহায় জামাল ভূঁইয়ার নেতৃত্বেই নামবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। খেলতে নামলে এটি হবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের জার্সিতে জামাল ভূঁইয়ার পঞ্চাশতম ম্যাচ। যে কোনো ফুটবলারের জন্যই দেশের হয়ে ৫০তম ম্যাচ খেলতে নামা অন্যরকম আবেগের।

২০১৩ সালে জাতীয় দলে অভিষেক। ৮ বছরের মাথায় পঞ্চাশতম ম্যাচ। এমন এক ম্যাচের আগে শিহরিত অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। কাতারের দোহার টিম হোটেল থেকে ৫০তম ম্যাচ নিয়ে জাগো নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন লাল-সবুজের অধিনায়ক।

জাগো নিউজ : জাতীয় দলের হয়ে পঞ্চাশতম ম্যাচ খেলতে যাচ্ছেন। আপনাকে আগাম অভিনন্দন।
জামাল ভূঁইয়া : ধন্যবাদ। যদি ৩ জুন আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পাই তাহলে সেটা হবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের জার্সিতে ৫০ তম ম্যাচ। খুব ভালো লাগছে আমার।

জাগো নিউজ : এ ম্যাচ নিয়ে আপনার কোনো বিশেষ পরিকল্পনা আছে?
জামাল ভূঁইয়া : আমি যখনই ম্যাচ খেলতে নামি, বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েই নামি। সে পরিকল্পনা হলো ভালো খেলা, ম্যাচ জেতার চেষ্টা।

জাগো নিউজ : তারপরও পঞ্চামতম ম্যাচ। একটা মাইলফলক স্পর্শ।
জামাল ভূঁইয়া : এটা ঠিক। একটা মাইলফলক। আমি সব ম্যাচেই সিরিয়াস থাকি, এ ম্যাচেও থাকবো।

জাগো নিউজ : এমন একটা মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে আপনার অনুভূতি শোনাবেন ভক্তদের?
জামাল ভূঁইয়া : আগেই বলেছি আমার কাছে সব ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। তবে পঞ্চাশতম ম্যাচ খেলতে নামার আগে ভালো লাগছে। আমি তো আরো অনেক ম্যাচ খেলতে চাই।

জাগো নিউজ : জাতীয় দলের হয়ে ৪৯টি ম্যাচ খেলেছেন। কোনো গোল নেই আপনার। পঞ্চাশতম ম্যাচে যদি গোল পেয়ে যান নিশ্চয়ই আরও স্মরণীয় হয়ে থাকবে।
জামাল ভূঁইয়া : এশিয়ান গেমসে কাতারের বিপক্ষে আমার গোল আছে। সেটি অবশ্য অনূর্ধ-২৩ দলের জার্সিতে। জাতীয় দলের জার্সিতে কে না গোল করতে চান? আমিও চাই। যদি পঞ্চামতম ম্যাচে গোল করতে পারি তাহলে সেটাতো অবশ্যই ভালো হবে। আমি চেষ্টা করবো গোল করে ম্যাচটিকে আরো স্মরণীয় করে রাখতে।

জাগো নিউজ : এক দুই করে করে এখন পঞ্চামতম ম্যাচের সামনে দাঁড়িয়ে। নিজেকে কোথায় দেখতে চান?
জামাল ভূঁইয়া : লাল-সবুজ জার্সিতে খেলার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে ৮ বছর আগে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেললে আমার পঞ্চাশ ম্যাচ হয়ে যাবে। আমি শততম ম্যাচও খেলতে চাই জাতীয় দলের জার্সিতে।

আরআই/আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]