ফ্রান্স-জার্মানির এমন লড়াই দেখা যায়নি আগে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৯ পিএম, ১৫ জুন ২০২১

বড় টুর্নামেন্টগুলোতে বড় এই দুই দলের শুরুতেই মুখ দেখাদেখি হয় না। নকআউটেই দেখা যায় লড়তে। তবে এবারের ইউরোর গ্রুপপর্বই ফুটবলপ্রেমীদের সুযোগ করে দিচ্ছে দুই জায়ান্ট ফ্রান্স আর জার্মানির ম্যাচটি উপভোগ করার।

বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স আজ রাতে মুখোমুখি হচ্ছে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির। মিউনিখে বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু হবে ম্যাচটি। দেখাবে সনি সিক্স এবং সনি টেন টু।

মেজর কোনো টুর্নামেন্টে তাদের শেষবার দেখা হয়েছিল ২০১৬ সালের ইউরো সেমিফাইনালে। আঁতোয়া গ্রিজম্যানের জোড়া গোলে সেই ম্যাচটি ২-০ ব্যবধানে জিতেছিল ফ্রান্স।

জার্মানি সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়িয়ে বড় কোনো ট্রফি জিততে পারেনি। কিন্তু ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পর্তুগালের কাছে গতবার হারলেও দুই বছর পর ২০১৮ বিশ্বকাপ জিতে নেয় ফ্রান্স।

জার্মানির বর্তমান দলটির কোনো খেলোয়াড়ের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে গোল নেই। টুর্নামেন্টে ১১টি ম্যাচ খেলা থমাস মুলার ২০১৬ সালে ইতালির বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচে পেনাল্টিও মিস করেছিলেন।

সব ভুলে এবার ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ঘরের মাঠ মিউনিখে দারুণ শুরু করতে চাইবে জার্মানরা। কেননা ১৫ বছর ধরে দায়িত্বে থাকা জোয়াকিম লো'র এটা শেষ টুর্নামেন্ট।

ফর্ম বিচারে ফ্রান্সকে এগিয়ে রাখতে হবে। দিদিয়ের দেশম প্রায় ছয় বছর পর দলে ফিরিয়ে এনেছেন অভিজ্ঞ করিম বেনজেমাকে। আঁতোয়া গ্রিজম্যান, কিলিয়ান এমবাপে আর বেনজেমাকে নিয়ে গড়া ফ্রন্টলাইন যে কোনো প্রতিপক্ষের জন্যই ভয়ের কারণ হবে।

তবে দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসেব করলে কিন্তু এগিয়ে থাকবে জার্মানিই। এখন পর্যন্ত ৩১টি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে দুই দল, জার্মানি জিতেছে ১৪টি। ফ্রান্সের জয় ১০টি, ড্র ৭ ম্যাচ।

সবমিলিয়ে মিউনিখে জমজমাট এক লড়াইয়ের অপেক্ষায় ফুটবলপ্রেমীরা। দেখা যাক, দুই হেভিওয়েটের যুদ্ধে শেষ হাসি কে হাসে!

এমএমআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]