‘রিয়ালে থাকতে চেয়েছিলাম; কিন্তু তারা রাখলো না’

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৬ পিএম, ১৭ জুন ২০২১

 

সার্জিও রামোস এখন আর রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড় নন। রিয়াল সমর্থকদের কাছে অবিশ্বাস্য এই তথ্য। কিন্তু বাস্তবতাকে তো আর অস্বীকার করা যায় না! তাই রিয়াল সমর্থকদেরও বাস্তবতা মেনে নিতে হচ্ছে।

তবে, বিদায় বেলায় সার্জিও রামোস জানিয়ে গেলেন, সত্যটা হচ্ছে তিনি থাকতে চেয়েছিলেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। কিন্তু তাকে শেষ পর্যন্ত রাখা হয়নি। রামোসের কথা শুনে মনে হচ্ছে, অনেকটা জোর করেই তাকে ক্লাব থেকে বের করে দেয়া হয়েছে।

সার্জিও রামোস জানিয়েছেন, তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রিয়াল ক্লাব কর্তৃপক্ষ তাকে যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন, সেটা তিনি গ্রহণ করে নেবেন। অর্থ্যাৎ পারিশ্রমিক কমিয়ে হলেও তিনি থাকতে চান রিয়ালে। কিন্তু যখন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি, তখন দেখলেন রিয়াল তাদের প্রস্তাবটাই প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এরপর তো আর তার থাকার সুযোগই নেই বার্নাব্যুতে থাকার।

রামোস ব্যাখ্যা করেন, রিয়াল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তার কী আলোচনা হয়েছিল। কী নেগোসিয়েশন করেছিলেন তিনি। পারিশ্রমিক কমিয়েও কিভাবে থাকতে চেয়েছিলেন রিয়ালে।

ফেয়ারওয়েল প্রেস কনফারেন্সে রামোস বলেন, ‘অনেক কিছুই তো জীবনে ঘটে। অনেক কিছুরই সম্মুখিন হতে হয়। প্রথমত যেটা বলতে চাই, সেটা হচ্ছে - আমি কখনোই চাইনি রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যেতে। আমি সবসময়ই চেয়েছি এই ক্লাবে থাকতে।’

এরপর তিনি বলেন, ‘বিস্তারিত ঘটনা হচ্ছে, লা লিগা শিরোপা জিতে (গত মৌসুমে) আমি লকডাউনে চলে যাই। এরপর ক্লাব আমাকে প্রস্তাব দেয় চুক্তি বাড়িয়ে নেয়ার সুযোগটা নিতে। কিন্তু কোভিডের কারণে ওই আলোচনা আপাতত পেছনে চলে যায়। গত কয়েকমাসে ক্লাব আমাকে এক বছরের চুক্তির সঙ্গে পারিশ্রমিক কমিয়ে দেয়ার প্রস্তাব দেয়। অর্থ কোনো সমস্যা নয়। ক্লাব সভাপতি নিজেও জানেন যে, আমি তাদেরকে ক্লিয়ার করেছি, পারিশ্রমিক কিংবা টাকা কোনো সমস্যা নয়। সমস্যাটা হলো, বছরের। তারা আমাদে প্রস্তাব দেয় এক বছরের, আমি চেয়েছি দুই বছরের। এটা আমার পরিবারের স্থিরতার জন্যও প্রয়োজন ছিল।’

তবুও রাজি হয়েছিলেন রামোস। তিনি বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত আমি তাদের প্রস্তাবেই রাজি হই। কিন্তু ততক্ষণে ক্লাবের পক্ষ থেকে আমাকে জানিয়ে দেয়া হয়, এখন আর কোনো প্রস্তাব আমার জন্য নেই। যেটা দেয়া হয়েছিল, তারও স্থায়িত্ব শেষ। আমি তাদেরকে বলেছি, আপনারা আমাকে সর্বশেষ যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন, আমি সেটাতেও রাজি। এখানে যে একটা এক্সপায়ারি ডেট ছিল, সে সম্পর্কে তো আমি জানতাম না।’

মূলতঃ রিয়াল মাদ্রিদ রামোসকে যে প্রস্তাব দিয়েছিল, সেই প্রস্তাব গ্রহণ করার শেষ সময় ছিল গত মার্চ মাস। এরপর রামোস ক্লাবে থাকতে চাইলেও প্রস্তাব গ্রহণ করার তারিখ পার হওয়ার কারণে রিয়ালও আর তাকে গ্রহণ করে নেয়নি।

আইএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]