নেইমারকে প্রশংসায় ভাসালেন পেলে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৭ এএম, ১৮ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৯:৫৯ এএম, ১৮ জুন ২০২১

ক্লাব ফুটবল বা অন্যান্য দলের হয়ে যেমন-তেমন, ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে যেন রীতিমতো এক জাদুকর নেইমার জুনিয়র। প্রতি ম্যাচেই নিজের সেরাটা উপহার দিয়ে দলকে এনে দিচ্ছেন একের পর এক জয়। যার ফলে কিংবদন্তি পেলেও নেইমারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

চলতি কোপা আমেরিকায় চলছে নেইমারের ধারাবাহিক পারফরম্যান্স। প্রথম ম্যাচে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে করেছিলেন এক গোল ও এক এসিস্ট। আজ পেরুর বিপক্ষে ৪-০ গোলের জয়েও নেইমারের অবদান একটি গোল। দুটি ম্যাচেই সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারও জিতেছেন তিনি।

শুধু দলীয় সাফল্য নয়, একের পর এক গোলের মাধ্যমে ব্যক্তিগত মাইলফলকেও অনেকদূর এগিয়ে গেছেন নেইমার। পেরুর বিপক্ষে করা গোলটি জাতীয় দলের জার্সিতে তার ৬৮তম গোল।

আর মাত্র ৯টি গোল হলেই ব্রাজিলের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা পেলের সমানে বসবেন নেইমার ও দশম গোলের মাধ্যমে তিনিই হয়ে যাবেন একককভাবে সর্বোচ্চ গোলদাতা। নেইমারের কাছে নিজের রেকর্ড হারাতেও আপত্তি নেই পেলের। তিনি বরং খুশিমনে স্বাগত জানাচ্ছেন নেইমারকে।

পেরুর বিপক্ষে জয়ের পর নেইমারকে প্রশংসায় ভাসিয়ে এক বার্তা দিয়েছেন পেলে। যেখানে তিনি জানিয়েছেন, নেইমারের খেলার পাশাপাশি হাসিরও বড় গুণমুগ্ধ তিনি। শুধু তাই নয়, নেইমারের শুরুর দিন থেকেই পেলে বুঝতে পেরেছিলেন, একদিন ঠিকই ভাঙবে তার রেকর্ড।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পেলে লিখেছেন, ‘যতবারই আমি এই ছেলেকে (নেইমার) দেখি, সে হাসছে। তার দিকে তাকিয়ে না হেসে থাকা অসম্ভব। এই হাসি সংক্রামক। সকল ব্রাজিলিয়ানের মতো আমিও অনেক খুশি হই, যখন তাকে ফুটবল খেলতে দেখি।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আজকে আমার করা ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডের দিকে আরও একধাপ এগুলো নেইমার। আমি তার এই রেকর্ডের অপেক্ষায় আছি। ঠিক ততটা আনন্দ নিয়েই, যতটা তাকে প্রথমদিন খেলতে দেখার পর হয়েছিল।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]