যাকে জার্সি দিতে চাননি, তার কাছেই ধরাশায়ী রোনালদোরা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৬ পিএম, ২০ জুন ২০২১

উয়েফা ইউরো কাপের শুরুটা দুর্দান্ত ছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালের। দলের অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জোড়া গোলে হাঙ্গেরির বিপক্ষে ৩-০ গোলে জিতেছিল তারা। তবে পরের ম্যাচেই তাদের মাটিতে নামাল জার্মানি। ইউরোর সবচেয়ে বেশিবারের চ্যাম্পিয়নদের কাছে ৪-২ গোলে পরাজিত হয়েছে রোনালদোর দল।

এ ম্যাচে জার্মানির চার গোলের মধ্যে দুটিই ছিল আত্মঘাতী অর্থাৎ দুই গোল করে দিয়েছেন পর্তুগালের খেলোয়াড়রাই। আর বাকি দুই গোলের মধ্যে একটি করেছেন কাই হাভার্জ, অন্যটি রবিন গোসেনস। হাভার্জের গোলটিতে এসিস্ট ছিল গোসেনসের। এছাড়া মাঠে থাকা ৬০ মিনিটে দুর্দান্ত পারফর্ম করে ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতেছেন গোসেনস।

অথচ চলতি বছরের এপ্রিলে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে এক বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়েছিল ইতালিয়ান ক্লাব আটলান্টার ডিফেন্ডার গোসেনসকে। সেদিন জুভেন্টাস ও আটলান্টার ম্যাচের পর রোনালদোর জার্সি চেয়েছিলেন গোসেনস। কিন্তু সেই জার্সি দেননি রোনালদো। রীতিমতো খাটোই করেছিলেন গোসেনসকে।

সেদিনের ঘটনা নিজের আত্মজীবনীতে লিখেছেন গোসেনস, ‘জুভেন্টাসের বিপক্ষে ম্যাচের পর আমি আমার দীর্ঘদিনের স্বপ্নপূরণের চেষ্টা করি। যা ছিল নিজের কাছে রোনালদোর জার্সি থাকা। ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজার পর আমি উল্লাস করার পরিবর্তে তার কাছে যাই। কিন্তু রোনালদো আমার কথায় সায় দেননি। আমি জিজ্ঞেস করলাম, ক্রিশ্চিয়ানো, আমি কি তোমার জার্সি পেতে পারি? জবাবে সে আমার দিকে তাকায়ওনি। শুধু বলে দেয়, না!’

‘এই ঘটনায় আমি রীতিমতো মর্মাহত হই এবং লজ্জায় কুকড়ে যাই। আমি তড়িঘড়ি করে সেখান থেকে সরে যাই এবং নিজেকে খুব ছোট মনে হচ্ছিল। আপনি জানেন, যখন কোনো লজ্জার ঘটনা ঘটে তখন আমরা আশপাশে তাকিয়ে দেখি সেটি কেউ লক্ষ্য করল কি না। আমার তখন তেমনই লাগছিল। আমি লুকোনোর জায়গা খুঁজছিলাম।’

সেই গোসেনস এবার জাতীয় দলের হয়েও জয় পেয়েছেন রোনালদোর দলের বিপক্ষে। শুধু জয় নয়, জিতেছেন ম্যাচসেরার পুরস্কারও। তবে এবার আর রোনালদোর জার্সি চাননি বলে জানালেন ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়। বরং প্রথম ম্যাচ হারের পর পাওয়া বড় জয়টিই বেশি উপভোগ করেছেন তিনি।

পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচের পর স্কাই স্পোর্ট ইতালিয়াকে গোসেনস বলেছেন, ‘আমরা জানতাম যে, আমাদের আজকে জিতে হবে। কারণ আজকে হেরে গেলে শেষ ষোলোতে যাওয়া কঠিন হতো। আমরা আক্রমণ ও রক্ষণে নিজেদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি। ম্যাচ জিতেছি, তাই আমি অনেক খুশি।’

এসময় তাকে মনে করিয়ে দেয়া হয় রোনালদোর সঙ্গে জার্সি বদলের আগের ঘটনাটি। এর প্রেক্ষিতে গোসেনস বলেছেন, ‘আমি এবার তার কাছ থেকে জার্সি চাইনি। কারণ আমি এ উৎসবমুখর সন্ধ্যায় দলের জয় উদযাপন করতে চেয়েছি।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]