রাশিয়াকে বিধ্বস্ত করে দ্বিতীয় রাউন্ডে ডেনমার্ক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৩১ এএম, ২২ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৭:২২ এএম, ২২ জুন ২০২১

ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের জন্যই ডেনমার্কের দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়াটা ছিল খুব গুরুত্বপূর্ণ। মাত্র এক সপ্তাহ আগে নিজেদের মাঠেই ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে যেভাবে মাঠে হার্ট অ্যাটাক করে পড়ে ছিলেন এরিকসেন, তাতে ডেনিসদের উচিৎ ছিল অন্তত দ্বিতীয় রাউন্ড খেলা।

কিন্তু কিভাবে? প্রথম দুই ম্যাচে ফিনল্যান্ড এবং বেলজিয়ামের কাছে হেরে যে বিদায়েরই প্রহর গুনছিল তারা? অন্যদিকে একটি করে জয় ততক্ষণে অর্জন করে ফেলেছিল রাশিয়া এবং ফিনল্যান্ড দু’দলই। তলানীতে ছিল কেবল ডেনমার্কই।

রাশিয়ার বিপক্ষে শেষ ম্যাচ। তার আগেই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান এরিকসেন। সোজা চলে যান সতীর্থদের ট্রেনিং গ্রাউন্ডে। সেখানে গিয়ে আবেগি করে দিয়ে আসেন ডেনমার্কের বাকি ফুটবলারদের। একই সঙ্গে তাতিয়েও দিলেন।

তাতেই কোপেনহেগেনে আজ পুড়ে ছাই হয়ে গেলো রাশিয়া। ৪-১ গোলে রীতিমত উড়ে গেলো রাশিয়া। দর্শকপূর্ণ স্টেডিয়ামের গ্যালারি যেন উত্তাল হয়ে উঠেছিল এরিকসেন আর ডেনমার্ক স্লোগানে। এই এক জয়েই গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ড সরাসরি নিশ্চিত হয়ে গেলো ডেনমার্কের।

আর ‘বি’ গ্রুপের শেষ দল হওয়ার কারণে বিদায় ঘটে রাশিয়ার। পয়েন্ট ডেনমার্ক এবং ফিনল্যান্ডের সমান হলেও গোল ব্যবধানে অনেক পিছিয়ে রাশিয়া। ২টি গোল দেয়ার পাশাপাশি হজম করেছে ৭টি। অন্যদিকে ফিনল্যান্ড ১টি দেয়ার পাশাপাশি হজম করেছে তিনটি। ডেনমার্ক ৫টি দিয়েছে, হজম করেছে ৪টি।

ডেনমার্কের হয়ে গোল চারটি করেন মিকেল ড্যামসগার্ড, ইউসেফ পউলসেন, অ্যান্ড্রেস ক্রিস্টেনসেন এবং জোয়াকিম মায়েলে। রাশিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন আর্তেম জিউবা।

জয় ছাড়া কোনো পথই খোলা ছিল না ডেনমার্কের। সেই কাঙ্খিত জয়টি শুধু পেলোই না, গোলের প্রয়োজনীয় ব্যবধাটাও গড়ে নিতে পারলো তারা।

৩৮ মিনিটে গোলের সূচনা করেন মিকেল ড্যামসগার্ড। বিস্ময়কর একটি গোল উপহার দেন তিনি। ৫৯ মিনিটের মাথায় রাশিয়ান গোলরক্ষক রোমান জোবনিনের ভুলের সুযোগ নিয়ে দ্বিতীয় গোল করেন ইউসেফ পউলসেন।

৭০ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান কমান রাশিয়ার আর্তেম জিউবা। তখনও গোল গড়ে পিছিয়ে ডেনমার্ক। ৭৯ মিনিটে আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেন গোল করে ডেনিসদের সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলেন। ৮২ মিনিটের মাথায় রাশিয়ার জালে শেষবারের মত বল জড়িয়ে দেন জোয়াকি মায়েলে।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]