জেমিকে অনেক সুযোগ দিয়েছিলাম, সে ব্যর্থ: কাজী সালাউদ্দিন

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৪৭ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

ইংলিশ কোচ জেমি ডে’কে নিয়ে কখনই সন্তুষ্ট ছিলেন না বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। মার্চে নেপালে তিন জাতি টুর্নামেন্টের ফাইনালে স্বাগতিকদের বিপক্ষে হারের পর রাগে-ক্ষোভে কারও সঙ্গে কথাই বলেননি তিনি। ফাইনালে দল নিয়ে জেমির পরীক্ষা-নিরীক্ষায় বিরক্ত ও ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন বাফুফে সভাপতি।

সর্বশেষ কিরগিজস্তানে তিন জাতি টুর্নামেন্টে দলের খেলা দেখতে বিশকেক ছুটে গিয়েছিলেন বাফুফে সভাপতি। কিন্তু সেখানে জাতীয় দলের পারফরম্যান্স হতাশ করেছে তাকে। ঢাকায় ফিরে কাজী সালাউদ্দিন বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ এত খারাপ খেলা দল নয়।’

একটার পর পর একটা টুর্নামেন্টে ব্যর্থ হওয়া জেমিকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরুর মাত্র ১৫ দিন আগে অব্যাহতি দিয়ে বাফুফে নতুন কোচ নিয়োগ দিয়েছে বসুন্ধরা কিংসের স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনকে। বাফুফে সভাপতি আশা করছেন, নতুন কোচের অধীনে বাংলাদেশ দল আগের চেয়ে ভালো খেলবে।

নেপালের পর কাতারে গিয়েও বাংলাদেশ খারাপ খেলেছে। তখন জেমিকে বাদ না দিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের আগে কেন বাদ দেয়া হলো? আরও আগে বাদ দিলে কি ভালো হতো না? কাজী সালাউদ্দিন জাগো নিউজকে বলেছেন, ‘হয়তো ভালো হতো। কারণ, তার কাজকর্মে আমি হতাশই ছিলাম। তারপরও তাকে অনেক সুযোগ দিয়েছি। দেখার চেষ্টা করেছি। শেষ পর্যন্ত সে ব্যর্থ হয়েছে।’

কোন কোন ক্ষেত্রে জেমির কাজে অসন্তুষ্ট ছিলেন বাফুফে সভাপতি, তাও পরিষ্কার করেছেন, ‘সে বেশির ভাগ সময়ই ইংল্যান্ডে থাকতো। নিজের ইচ্ছেমত প্রবাসী ফুটবলার নিয়ে এসেছে। বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছে। আমার এসব পছন্দ হয়নি।’

বাফুফের অনুমতি ছাড়া তো কোচ কাজ ফেলে ছুটি কাটাতে পারেন না, তাই না? কাজী সালাউদ্দিন স্বীকার করলেন, এসব নিয়ে তাদেরও কিছু ভুল ছিল।

একদিন আগে বাফুফের ন্যাশনাল টিমস কমিটি আনুষ্ঠানিকভাবেই নতুন কোচ হিসেবে বসুন্ধরা কিংসের অস্কার ব্রুজনের নাম ঘোষণা করেছে। তবে এ নিয়ে কিছুটা অস্পষ্টতাও ছিল।

বিকেলে অস্কার গণমাধ্যমে কোনো কথা বলতে রাজি হননি। তবে শনিবার বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের বাসায় গিয়েছিলেন এই স্প্যানিশ কোচ। সেখানে দুজনের ঘন্টা দুয়েক আলোচনা হয়েছে।

কী আলাপ হলো নতুন কোচের সঙ্গে? অস্কারকে নিয়ে আরও পরে কথা বলবেন বলে জানিয়ে বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি পরে কথা বলব। জেমির পরিবর্তে অস্কার দুই মাসের জন্য কোচ, এটাই সত্য।’

তাহলে দুই মাস পর জেমির ভাগ্যে কী আছে? তিনি কি আবার ফিরবেন? এখানেও এককভাবে কাজী সালাউদ্দিন কোন সিদ্ধান্ত জানাতে অপারগ। তার কথা, ‘সেটা সময়ই বলে দেবে। বাফুফে সিদ্ধান্ত নেবে। এখনই এ বিষয়ে কিছু বলা সম্ভব না।’

জেমি কি তার সব সুযোগ-সুবিধা পাবেন এখন? ‘কেন নয়? জেমি এখনও আমাদের চুক্তিবদ্ধ কোচ। আপাতত তাকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে রাখা হয়েছে’-বলেছেন বাফুফে সভাপতি।

জেমিকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার আগে তার সঙ্গে কোনো আলোচনা হয়েছে? বাফুফে সভাপতির সোজাসাপ্টা কথা, ‘কোনো প্রয়োজন ছিল না। তাকে দিয়ে আমার কাজ না হলে অব্যাহতি দেয়ার আগে কথা বলতে হবে কেন? কোচদের তো ডাগআউটে দাঁড়ানোর পরও সরিয়ে দেয়া হয়। জেমি গণমাধ্যমে যে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে, সেটা সে পারে না।’

মার্চে নেপালের টুর্নামেন্টের পর কোচের সঙ্গে জাতীয় দলের পারফরম্যান্স নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা করেছিলেন কাজী সালাউদ্দিন। তখন নাকি জেমি বলেছিলেন, এই দলের উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা কম। বড়জোড় ১ ভাগ বাড়তে পারে। বাফুফে সভাপতির কথা, ‘তাহলে তো অন্য কাউকে দিয়ে চেষ্টা করাই ভালো। সাফে নতুন কোচের অধীনে দল ভালো খেলবে।’

আরআই/এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]