জামালদের নিয়ে দ্বীপদেশের পথে অস্কার ব্রুজন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:২৫ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

মালদ্বীপ একবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজন করলেও দেশটিতে খেলা হয়নি বাংলাদেশের। ২০০৮ সালে মালদ্বীপের সঙ্গে সাফের যৌথ আয়োজক ছিল শ্রীলংকা। বাংলাদেশের খেলা হয়েছিল শ্রীলঙ্কায়, গ্রুপপর্ব টপকাতে না পারায় মালদ্বীপে যাওয়া হয়নি লাল-সবুজ জার্সিধারীদের।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ খেলতে এই প্রথম দ্বীপদেশটিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলের ফুটবলাররা। মঙ্গলবার বিকেলে নতুন শিষ্যদের নিয়ে মালদ্বীপ রওনা হয়েছেন কোচ অস্কার ব্রুজন।

নতুন কোচ, নতুন ভেন্যু। বাংলাদেশও পুরনো স্বপ্নকে দেখছে নতুন করে। টানা চারটি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেয়া বাংলাদেশ এবার শিরোপায় চোখ রেখেছে। ট্রফি উদ্ধারের সেই মিশনে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা সফল হবে কিনা তা দেখতে ফুটবলামোদীদের চোখও থাকবে দ্বীপদেশটিতে।

এবারের আসরের ফরমেশনটাও নতুন। ৭ দেশের দক্ষিণ এশীয় টুর্নামেন্ট এবার ৫ দল নিয়ে। পাকিস্তান ফিফা থেকে সাসেপন্ড, ভুটান খেলছে না। দল কম বলে খেলা হবে রাউন্ড রবিন লিগ ভিত্তিতে। শীর্ষ দুই দল লড়বে ফাইনালে। নতুন এই নিয়মের কারণেও বাংলাদেশকে একটু আশাবাদী করে তুলছে।

১ থেকে ১৬ অক্টোবর টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ প্রথম দিনই মাঠে নামছে, প্রতিপক্ষ শ্রীলংকা। পরের ম্যাচটি সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ ভারতের বিপক্ষে ৪ অক্টোবর। এরপর ৭ অক্টোবর মালদ্বীপ ও ১৩ অক্টোবর নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

প্রায় সাড়ে ৩ বছর দায়িত্ব পালন করা ইংল্যান্ডের জেমি ডে’কে অব্যাহিত দিয়ে সাফের জন্য নতুন কোচ নিয়োগ দিয়েছে বাফুফে। ঘরোয়া ফুটবলে বসুন্ধরা কিংসকে সাফল্য এনে দেয়া অস্কার ব্রুজনের হাত ধরে ফিরবে কী বাংলাদেশের দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব? কোচ আশাবাদী, আত্মবিশ্বাসী জামাল ভূঁইয়ারা। ফুটবলামোদীরা অপেক্ষায় মাঠের পারফরম্যান্স দেখার।

আরআই/আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]