বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল সিলেটে উদ্বোধন রোববার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৯:৩৫ পিএম, ০৭ মে ২০২২

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট এবার সিলেটে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। রোববার (৮ মে) যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে, ক্রীড়া পরিদপ্তরের সহযোগীতায় এবং সিলেট জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে বেলা ২টায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে দেশের সবচেয়ে বড় ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব: ১৭) ২০২২ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালিকা (অনূর্ধ্ব: ১৭) -২০২২ এর উদ্বোধন উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, সচিব মেজবাহ উদ্দিন, সিলেট বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করবেন সিলেট জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান।

টুনার্মেন্ট সম্পর্কে শনিবার দুপুরে সিলেটের জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান।

তিনি বলেন, ‘লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীদের ক্রীড়া চর্চায় উদ্বুদ্ধকরণ ও শারীরিক, মানসিক ও নান্দনিক বিকাশ, প্রতিযোগীতার মাধ্যমে সহিষ্ণুতা, মনোবল বৃদ্ধি এবং মাদকাশক্তি, জঙ্গিবাদসহ সকল ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে বিরত রাখার লক্ষ্যেই এ আয়োজন।’

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবার বালক (অনূর্ধ্ব: ১৭) প্রতিযোগিতায় উপজেলা পর্যায়ে সারা দেশে ৪ হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন ও ২৫৭টি পৌরসভার ৪ হাজার ৮২৮টি দলের ৮৬ হাজার ৯০৪ জন খেলোয়াড়, জেলা পর্যায়ে ৬৪টি জেলা ও ৮টি সিটি কর্পোরেশনসহ ৬৮টি দলের ১ হাজার ২২৪ জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করবে।

সর্বশেষ ৮টি বিভাগীয় দলের ১৪৪ জনসহ সারা দেশের ৯৮ হাজার ৭৩০ জন বালক অংশ নেয়ার সুযোগ পায়। বালকদের উপজেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলেও বালিকাদের প্রতিযোগিতা জেলা পর্যায় থেকে শুরু হয়। সারা দেশে ১১ হাজার ৮২৬ জন বালিকা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে ক্রীড়া পরিদপ্তর- যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (যুগ্ম সচিব) নূরে আলম সিদ্দিকী, ক্রীড়া পরিদপ্তর-এর উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার সিলেটের উপ-পরিচালক মামুনুর রশিদ, সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মো. আনোয়ার সাদাত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. মোবারক হোসেন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন সেলিম, এনডিসি মাহবুবুর রহমান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার আহসানুল আলম, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ রাসেল, কার্যনিবাহী সদস্য মিঠু দাস জয় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক জানান, সিলেট জেলার উপজেলা পর্যায়ে ১০৫টি ইউনিয়ন ও ৪টি পৌরসভায় মোট ১৯৬২ জন বালক, জেলা পর্যায়ে ১৩টি উপজেলা ও ১টি সিটি কর্পোরেশনে ২৫২ জন বালক ও ২৫২ জন বালিকা অংশগ্রহণ করবে। বয়স ভিত্তিক এই টুর্নামেন্ট থেকে ৪০ জন বালক ও ৪০ জন বালিকা প্রতিভাবান খেলোয়াড় বাছাই করে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

এরই মধ্যে প্রতিভাবান ৪ জন খেলোয়াড়কে উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য ব্রাজিলে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ২০২১ সালের আয়োজন থেকে ১১ জন বালক ব্রাজিলে এবং ১১ জন বালিকেকে পর্তুগালে প্রেরণ করা হচ্ছে। উদীয়মান খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা প্রদান এবং দেশের ফুটবলের মান উন্নয়নের লক্ষ্যেই তৃণমূলের এই খেলোয়াড়দের নিয়ে ২০১৮ সাল থেকে প্রতিবছর এ আয়োজন করা হচ্ছে।

রোববার উদ্বোধন শেষে অনূর্ধ্ব-১৭ (বালক) এবং অনূর্ধ্ব-১৭ (বালিকা) পর্যায়ের উদ্বোধনী খেলা অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শেষে বিকাল সাড়ে ৪টায় দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ঐশীসহ অন্য শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সবাইকে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের জন্য আহবান জানান জেলা প্রশাসক মুজিবর রহমান।

ছামির মাহমুদ/আইএইচএস/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।