কিংসের চার খেলোয়াড় নিয়ে ক্যাবরেরার অপেক্ষা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ২৬ মে ২০২২

ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ এবং মালয়েশিয়ায় এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে জন্য জাতীয় ফুটবল দল চূড়ান্ত করতে আরো সময় নিচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের স্প্যানিশ কোচ হ্যাভিয়ের ক্যাবরেরা। বসুন্ধরা কিংস এএফসি কাপ শেষ করে কলকাতা থেকে ফেরার পর ওই দলের ১৩ জনকে ডেকেছেন কোচ।

তবে সমস্যা দেখা দিয়েছে ওই ১৩ জনের চারজন তারিক রায়হান কাজী, মাসুক মিয়া জনি, সুমন রেজা ও মতিন মিয়াকে নিয়ে। কলকাতায় ম্যাচ খেলার সময় ওই চার জনই ব্যথা পেয়েছেন। তাদের ২৩ জনের স্কোয়াডে রাখবেন কি রাখবেন না- তা এখনো চূড়ান্ত নয়। যে কারণে কোচ আপাতত ২৭ জনের নাম ঘোষণা করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাফুফে ভবনে জাতীয় দল নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কোচ হ্যাভিয়ের ক্যাবরেরা বলেছেন, ‘ওই চারজন ডাক্তার ও ফিজিও’র পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আরো সময় লাগবে। ওই চারজনের মধ্যে কাউকে নিলে বাকি ২৩ জনের মধ্যে থেকে বাদ পড়বে। তবে ওই চারজনের দলে ঢোকার সম্ভবনা মাত্র ১০ পার্সেন্ট।’

২৩ ফুটবলার নিয়ে ক্যাবরেরা ইন্দোনেশিয়া রওনা দিচ্ছেন বৃহস্পতিবার রাত পৌনে চারটায়। সেখানে ১ জুন প্রীতি ম্যাচ খেলে পরের দিন মালয়েশিয়া যাবে দল এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে অংশ নিতে।

নতুন এই কোচের অধীনে এর আগে দুটি ম্যাচ খেলেছে জাতীয় দল। মালেতে মালদ্বীপের বিপক্ষে হেরেছে এবং সিলেটে মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে ড্র করেছে। এই সফরটা তাই ক্যাবরেরার জন্য একটি চ্যালেঞ্জই। বড় পরীক্ষাও। তবে বাফুফে এখনো কোচের ভবিষ্যত নিয়ে কিছু ভাবছে না। বাফুফে সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ বলেছেন, ‘কোচের সঙ্গে এক বছরের চুক্তির অর্ধেক সময় পার হয়ে গেছে। তবে তার পারফরম্যান্স ও চুক্তি নবায়নের বিষয় নিয়ে বাফুফে এখনো কিছু চিন্তা ভাবনা করেনি।’

কিংসের ওই চার খেলোয়াড়কে যদি শেষ পর্যন্ত ২৩ জনে রাখা সম্ভব না হয় তাহলে ক্যাবরেরা যে পূর্ন শক্তির দল নিয়ে যেতে পারছে না সেটা দিনের আলোর মতো পরিষ্কার। গোলরক্ষক শহীদুল ইসলাম সোহেল ইনজুরির কারণে ক্যাম্পেই যোগ দিতে পারেননি। ফরোয়ার্ড নাবিব নেওয়াজ জীবন বাদ পড়েছেন শৃঙ্খলাজনিত কারণে। এরপর অনুশীলনের সময় ব্যথা পেয়ে ক্যাম্প ছেড়েছেন হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস ও সাদ উদ্দিন।

কিংসের ওই চারজন ঢুকতে না পারলে বেশ কয়েকজন তরুণ খেলোয়াড়কে নিয়েই স্কোয়াড গঠণ করতে হবে ক্যাবরেরাকে। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, বাছাইয়ের এই ম্যাচগুলোতে আমাদের ধাপে ধাপে চিন্তা করতে হবে। এখানে যে তরুণরা সুযোগ পাবে তাদের নিজেদের প্রমানের ভালো সুযোগ থাকবে। ১৬ মে ক্যাম্প শুরু করে ছেলেদের ৮ সেশন অনুশীলন করিয়েছি। আমাদের ভালো কিছু কাজ হয়েছে। এখন সেগুলো মাঠে প্রয়োগ করতে হবে। প্রতিটি ম্যাচেই আমি দলের কাছে লড়াকু ফুটবল প্রত্যাশা করছি’-বলছিলেন ক্যাবরেরা।

এশিয়া কাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশের ম্যাচগুলো

৮ জুন : বাংলাদেশ-বাহরাইন
১১ জুন : বাংলাদেশ-তুর্কমেনিস্তান
১৪ জুন : বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া

আরআই/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]