‘আগামী মৌসুমেই ক্যারিয়ারের সেরাটা দেখাবেন মেসি’

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩২ পিএম, ২৪ জুন ২০২২

বয়স পার হয়ে গেছে ৩৫। ছত্রিশে পা রেখেছেন আজ। এরই মধ্যে গত প্রায় দেড় দশক ধরে লিওনেল মেসিকে দেখছে ফুটবল বিশ্বের কোটি কোটি ভক্ত-সমর্থক। অনেক অসাধারণ পারফম্যান্স দেখিয়েছেন তিনি। পায়ের জাদুতে মাত করেছেন সারা ফুটবল বিশ্বকে। জিতেছেন সাতটি ব্যালন ডি’অর।

অথচ, এই মেসি নাকি এখনও নিজের সেরাটাই দেননি এবং প্যারিসের ক্লাব পিএসজি চেয়ারম্যান নাসের আল খেলাইফির দাবি, আগামী মৌসুমেই ইতিহাসের সেরা ফুটবল খেলাটা দেখাবেন মেসি।

গত বছর বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করার বিষয়ে যখন মেসি একমত হতে পারেননি, তখন তিনি হয়ে যান ফ্রি এজেন্ট। সুযোগটা লুফে নেয় পিএসজি। বিশ্বসেরা এই তারকাকে দলভূক্ত করে নেয় দীর্ঘদিনের লালিত উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাটা জয় করার জন্য।

কিন্তু মেসির উপস্থিতিতেও পিএসজিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬ থেকেই বিদায় নিতে হয় রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে। যা নিয়ে সমালোচকরা মেতেছেন মেসির সমালোচনায়।

কিন্তু সমালোচকদের কথায় কান দিতে নারাজ পিএসজি প্রেসিডেন্ট। লে পেরিসিয়ানকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি সরাসরি বলে দিয়েছেন, ‘রেকর্ড সাতবার যে লিওনেল মেসি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন, তাতে তো কোনো সন্দেহ নাই। আমার মতে তার সেরা মৌসুমটা এখনও যায়নি।’

গত মৌসুমটাও পিএসজির জার্সিতে খুব একটা ভালো যায়নি মেসির। ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে গোল করেছেন মাত্র ৬টি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে করেছেন ৫টি। আর অ্যাসিস্ট করেছেন কেবল ১৫টি।

নাসের আল খেলাইফি এসব নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন। তিনি বলেন, ‘বার্সেলোনায় প্রায় ২০ বছরের বেশি কাটিয়েছেন মেসি। এরপর এসেছেন একটি সম্পূর্ণ নতুন দেশে, নতুন শহর, নতুন লিগ এবং ক্লাবে। এখানে আবার সংস্কৃতিটাও পুরোপুরি নতুন। এমনকি তার পরিবারের জন্যও সব কিছু নতুন। শুধু তাই নয়, তিনি ইনজুরিতে পড়েছিলেন, করোনাভাইরাসেও আক্রান্ত হয়েছিলেন।’

আল খেলাইফির বিশ্বাস, আগামী মৌসুমে মেসি তার নিজের অবস্থানেই ফিরে যাবেন এবং নিজের সেই চোখ ধাঁধানো পারফরম্যান্সই প্রদর্শন করবেন।

তিনি বলেন, ‘গত মৌসুমটা খুব ভালো কাটেনি তার। তবে আমাদের আশা, আগামী মৌসুমেই মেসির ক্যারিয়ারের সেরাটা দেখবে সবাই।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]