ফুটবলে নিষিদ্ধ ভারত: বুধবার সভায় বসছে সাফ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:৩৩ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০২২

অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ফিফা। বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা যতদিন ভারতের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে না নেবে, ততদিন ভারত কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবে না। সেটা ফিফার আয়োজনে হোক কিংবা এএফসি ও সাফ।

যে কারণে আগামী মাসে হতে যাওয়া দুটি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতের খেলার সুযোগ নেই নিষেধাজ্ঞামুক্ত হতে না পারলে। আগামী ৬ থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর নেপালের কাঠমান্ডুতে হবে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ ও ৫ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় সাফ অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপ।

দুটি টুর্নামেন্টেই ছিল ভারত। দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী দেশটি নিয়েই এরই মধ্যে ঠিকঠাক হয়েছে গ্রুপিং ও ফিকশ্চার। কিন্তু আজ (মঙ্গলবার) হঠাৎ ফিফার নিষেধাজ্ঞায় বদলে গেলো হিসেব নিকেশ।

ভারত যদি টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ফিফার নিষেধাজ্ঞামুক্ত না হতে পারে তাহলে কী হবে? সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের (সাফ) সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হকে হেলাল জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, ‘এখানে হিসাবটা পরিষ্কার। ভারত যদি নিষেধাজ্ঞামুক্ত না হতে পারে, তাহলে তারা খেলতে পারবে না। এর আগে যেমন খেলতে পারেনি পাকিস্তান। ফিফার নিষেধাজ্ঞা থাকলে কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টই খেলা যায় না।’

বুধবার সাফের পূর্ব নির্ধারিত সভা আছে। এই সভায় ভারতের নিষেধাজ্ঞা ও সাফের দুটি টুর্নামেন্ট নিয়ে আলোচনা হবে বলেও জানিয়েছেন আনোয়ারুল হক হেলাল, ‘সভাটি আমাদের আগে থেকেই ঠিক ছিল। এখন এই সভায় আমরা সামনের দুটি টুর্নামেন্ট নিয়ে আলোচনা করতে পারবো।’

নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভারত রয়েছে বাংলাদেশের সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপে। গ্রুপের অন্য দুই দল হচ্ছে পাকিস্তান ও মালদ্বীপ। ভারত বাদ পড়লে গ্রুপে থাকবে তিনটি দল। অন্যদিকে সাফ অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতে রয়েছে ‘বি’ গ্রুপে। সেখানে অন্য দুই দল নেপাল ও ভুটান।

আরআই/এমএমআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।