এবার শিরোপা জিতবে বার্সেলোনা, নিশ্চয়তা দিলেন লেওয়ানডস্কি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৭ এএম, ১৮ আগস্ট ২০২২

লিওনেল মেসির ক্লাব ছাড়ার পর দুঃস্বপ্নের মতো একটি মৌসুম পার করেছে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়ে খেলতে হয়েছে ইউরোপা লিগে। সেখানেও যাত্রা থেমে গেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। স্প্যানিশ লা লিগায়ও ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় হয়েছে তারা।

এছাড়া স্প্যানিশ সুপার কাপ বা কোপা দেল রে ট্রফিতেও সাফল্যের দেখা পায়নি বার্সেলোনা। সবমিলিয়ে শিরোপাশূন্যই কেটেছে পুরো মৌসুম। এবার নতুন মৌসুমে বেশ কিছু খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়ে নতুনভাবে শিরোপার খোঁজে নামছে ক্লাবটি। এই মৌসুমে বার্সার সবচেয়ে বড় সাইনিং রবার্ট লেওয়ানডস্কি।

জার্মান ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখ থেকে চার বছরের চুক্তিতে বার্সেলোনায় এসেছে লেওয়ানডস্কি। ক্লাবে যোগ দিয়ে এরই মধ্যে বেশ কয়েক ম্যাচও খেলে ফেলেছেন তিনি। এবার লেওয়ানডস্কি নিশ্চয়তা দিলেন, চলতি মৌসুমে অবশ্যই শিরোপা জিতবে বার্সেলোনা। লা লিগা ওয়ার্ল্ড-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন তিনি।

লেওয়ানডস্কির ভাষ্য, ‘নিশ্চিতভাবেই আমাদের জন্য রোমাঞ্চকর মৌসুম হবে। সঙ্গে এটা এমন একটা মৌসুম হতে চলছে, যার শেষে বার্সেলোনার সমর্থকরা খুবই খুশি থাকবে। আমার মনে হয়, দীর্ঘ একটা সময় ট্রফি ছাড়া কেটেছে বার্সেলোনার। কিছু শিরোপা জেতার এখনই উপযুক্ত সময় এবং আমি নিশ্চিত আমরা সেটাই করব।’

এসময় বার্সায় আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘প্রথম যখন জানতে পারি বার্সেলোনা আমাকে নিতে আগ্রহী, শুরু থেকেই জানতাম এটা আমার এবং ক্লাবের জন্য উপযুক্ত সময়। আমি সারা জীবন একটি লিগে খেলতে চাইনি। বুন্দেসলিগায় ভালো ছিলাম, কিন্তু আমার মনে হয়েছে, লা লিগায় যোগ দেওয়া এবং ক্যারিয়ারের পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়ার এটাই সঠিক সময়।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমি জানি, এটাই ঠিক মুহূর্ত আমার জন্য এবং বিশাল চ্যালেঞ্জও বটে, তবে আমি এর জন্য প্রস্তুত। লা লিগায় খেলা আমার জন্য সবসময়ই স্বপ্ন ছিল এবং এখন আমি বার্সেলোনায়। এখানে আসতে পেরে আমি খুবই খুশি। আমরা নতুন মৌসুমের জন্য মুখিয়ে আছি।’

এসএএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।