একই দিনে পেলে-ম্যারাডোনাকে পেছনে ফেলে সোনার বুটের দৌড়ে এমবাপে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

বয়স মাত্র ২৩ বছর। এরই মধ্যে একে একে বিস্ময়ের সব সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছেন ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপে। রোববার রাতে পোল্যান্ডের বিপক্ষে করলেন জোড়া গোল। তার এই জোড়া গোলের সুবাধে ৩-০ ব্যবধানে পোলিশদের হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

জোড়া গোল করে একই দিন ফুটবল বিশ্বের দুই কিংবদন্তি, যাদের কাউকে বলা হয় ফুটবলের রাজা, কাউকে বলা হয় ফুটবলের সম্রাট- সেই দুই তারকা পেলে এবং ম্যারাডোনাকে একই সঙ্গে পেছনে ফেললেন এমবাপে। শুধু তাই নয়, এবারের বিশ্বকাপে এরই মধ্যে সোনার বুটের দৌড়ে এগিয়ে তিনি।

তবে, গোল্ডেন বুটের কোনো লক্ষ্য আপাতত নেই এমবাপের। তার ইচ্ছা, ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিনশিপের মর্যাদাটা ধরে রাখা। অর্থাৎ আবারও বিশ্বকাপ শিরোপা জিততে চান তিনি।

পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের পর এমবাপে বলেন, ‘আমার একটাই স্বপ্ন। বিশ্বকাপ জেতার জন্যই কাতারে এসেছি। সোনার বল বা সোনার বুট জেতার জন্য আসিনি। এর কোনো একটা পেয়ে গেলে অবশ্যই খুশি হবো। যদিও এগুলো আমার লক্ষ্য নয়। আমি জিততে এসেছি। ফ্রান্সের জাতীয় দলকে যতটা সম্ভব সাহায্য করতে এসেছি।’

বিশ্বকাপে মাত্র ২৩ বছর বয়সেই ৯টি গোল করে খুশি ক্লাব ফুটবলে মেসি-নেইমারদের সতীর্থ। তিনি বলেন, ‘আমি শুধু প্রতিযোগিতা এবং নিজের ফুটবলে মন দিতে চাই। যখন কোনো কাজ মন দিয়ে করি, তখন শুধু সেটাই করি। সেজন্য সাংবাদিকদের সঙ্গে বেশি কথাও বলতে চাই না এখন। এই প্রতিযোগিতার জন্য গোটা মৌসুম ধরে প্রস্তুতি নিয়েছি। নিজেকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে তৈরি করেছি। এ প্রতিযোগিতার জন্য নিজেকে সব রকম ভাবে প্রস্তুত করতে চেয়েছিলাম এবং করেছি।’

পোল্যান্ডের বিপক্ষ তার করা দুটি গোলই ছিল দেখার মতো। দূরপাল্লার শটে গোল করেন তিনি। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপে মোট ৯টি গোল হলো এমবাপের। আগের বিশ্বকাপে করেছিলেন চারটি গোল। এবার বাকিদের থেকে অন্তত দুটি গোলে এখনই এগিয়ে তিনি।

বিশ্বকাপে সবচেয়ে কম বয়সে আট গোল করার নজির এতদিন ছিল পেলের। ১৯৬৬ সালে ২৬ বছর বয়সে অষ্টম গোলটি করেছিলেন তিনি। এমবাপে সেই কাজ করে ফেললেন ২৩ বছর বয়সেই। গত বিশ্বকাপে তিনি সবচেয়ে কম বয়সে ফাইনালে গোল করার ক্ষেত্রে পেলের পরই অবস্থান করছিলেন। এবার ব্রাজিলের কিংবদন্তিকেই পেরিয়ে গেলেন।

ম্যারাডোনাও হার মানলেন এমবাপের কাছে। চারটি বিশ্বকাপে ম্যারাডোনার মোট গোল আটটি। তার থেকে অনেক কম বয়সে সেই রেকর্ড পেরিয়ে গেলেন এমবাপে। শনিবারই ম্যারাডোনাকে টপকে যান আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি। একদিন পরই সেই একই কৃতিত্ব দেখালেন এমবাপে। বিশ্বকাপে এখন মেসি এবং এমবাপের গোল সমান- ৯টি করে। গতবারও বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে জোড়া গোল করেছিলেন এমবাপে।

প্রসঙ্গত শনিবার অনুশীলনের ফাঁকে সাজঘরে চলে যান এমবাপে। কিছুক্ষণ পরে ফিরে আসেন আবার। দেখা গেলো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পেলের সুস্থতা কামনা করে পোস্ট দিয়েছেন। সেই ফুটবলারকেই কয়েক ঘণ্টার মধ্যে টপকে গেলেন।

তবে বিশ্বকাপে ফ্রান্সের হয়ে গোল করার রেকর্ডের ক্ষেত্রে এখনও চারটি গোল বাকি তার। ১৯৫৮ বিশ্বকাপে একই প্রতিযোগিতায় ১৩টি গোল করেছিলেন জ্যাঁ ফঁতে।

আইএইচএস/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।