এবার বোল্ট-মারেদের প্রতিপক্ষ রোনালদো


প্রকাশিত: ০৯:০৮ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৭
এবার বোল্ট-মারেদের প্রতিপক্ষ রোনালদো

দুর্দান্ত একটি বছর পার করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তার ট্রফি কেবিনেটে সবচেয়ে বড় অপূর্ণতা যেটি ছিল, দেশের হয়ে বড় কোন টুর্নামেন্টের শিরোপা, সেটাও অর্জন হয়ে গেলো গত বছর। পর্তুগালকে ইতিহাসে প্রথমবারেরমত এনে দিয়েছেন ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা। ক্লাবের হয়ে জিতেছেন উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, উয়েফা সুপার কাপ এবং ক্লাব বিশ্বকাপ। বছলজুড়ে করেছিলেন ৫৯টি গোল।

ব্যাক্তিগত অর্জনের মুকুটে যোগ হয়েছে রঙিন রঙিন পালক। ইউরোপের সেরা ফুটবলারের পুরস্কার ব্যালন ডি’অর। ফিফা কর্তৃক প্রবর্তিত প্রথমবারেরমত ‘দ্য বেস্ট অ্যাওয়ার্ড’ বিজয়ী হয়েছেন। স্বপ্নের মত একটি বছর কাটানোর পর এবার রোনালদোর সামনে বিরল এক অর্জনের হাতছানি।

যেটা এর আগে আর কোনো ফুটবলার স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেনি। লিওনেল মেসি, দিয়েগো ম্যারাডোনা তেকে শুরু করেছে পেলে পর্যন্ত- কেউ না। লরেস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ার। শুধু ফুটবল নয়, সারা বিশ্বের সব খেলার মধ্য থেকে বাছাই করা হয় স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ার।

এর আগে আর কখনও কোনো ফুটবলার এই পুরস্কার জিততে পারেননি। এই প্রথম পুরস্কার জয়ের একেবারে দ্বারাপ্রান্তে দাঁড়িয়ে সিআর সেভেন। ক্রীড়া সাংবাদিকতার সঙ্গে জড়িতদের নিয়ে ভোটাভুটি হয়। সেখান থেকেই বাছাই করা হয় স্পোর্টস ম্যান অব দ্য ইয়ার। বাস্কেটবল তারকা স্টেফ কারি এবং লেবর্ন জেমস, অ্যাথলেট উসাইন বোল্ট এবং মো ফারাহ এবং উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন অ্যান্ডি মারে।

রোনালদোর ক্লাব এবং দেশ- রিয়ার মাদ্রিদ এবং পর্তুগাল মনোনীত হয়েছে ওয়াল্ড স্পোর্টস টিম অব দ্য ইয়ারের জন্য। তাদেরকে লড়াই করতে হবে অলিম্পিক সোনাজয়ী ব্রাজিলের। প্রতিপক্ষ হিসেবে রয়েছে চমক দেখিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ জয়ী লেস্টার সিটি এবং ইউরোয় চমক সৃষ্টি করা আইসল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দল।

ফেব্রুয়ারির ১৪ তারিখ ফ্রান্সের মোনাকোয় ঘোষণা করা হবে বিজয়ীদের নাম।

আইএইচএস/এমএস