Jago News logo
Banglalink
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৭ | ১৪ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
ASUS-Jago-bd-gif

আল আমিনের ঘূর্ণিতে মোহামেডানকে হারাল প্রাইম ব্যাংক


ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৫:২৫ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার
আল আমিনের ঘূর্ণিতে মোহামেডানকে হারাল প্রাইম ব্যাংক

ব্যাটসম্যান আল আমিনের রুদ্ররূপ আগের ম্যাচেই দেখেছিল খেলাঘর। দারুণ এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন তিনি। তবে বল হাতেও যে কম যান না এ অলরাউন্ডার, তা আজ টের পেয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। তার বোলিং ঘূর্ণিতে বড় হার নিয়ে মাঠে ছাড়তে হয়েছে ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটিকে। ফতুল্লায় তাদের ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।

শুক্রবার বৃষ্টির কারণে ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ৪১ ওভারে ১৪৯ রানের লক্ষ্য পায় প্রাইম ব্যাংক। তবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে দারুণ চাপে পড়ে দলটি। এরপর ভারতীয় ব্যাটসম্যান উম্মুখ চাঁদকে ৪৩ রানের জুটি দলকে চাপমুক্ত করার চেষ্টা করেন সাব্বির রহমান। দলীয় ৫৩ রানে চাঁদ বিদায় নিলে আবার চাপে পড়ে যায় দলটি।

চাঁদের বিদায়ের পর তাইবুর পারভেজকে নিয়ে দলের হাল ধরেন সাব্বির। অপরাজিত ৯৭ রানের জুটিতে জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন এ দুই ব্যাটসম্যান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন সাব্বির। ৭৫ বল মোকাবেলা করে ৪টি চার ও ৫টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। পারভেজ ৪২ বলে ৫০ রান করেন। মোহামেডানের পক্ষে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম, শুভাশিস রায় ও এনামুল হক জুনিয়র।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে মোহামেডান। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালোই করে তারা। ৪৩ রানের ওপেনিং জুটি গড়ার পর আউট হন শামসুর রহমান শুভ। এরপর ফিরে যান রনি তালুকদারও। এরপর আফগানিস্তান রিক্রুট রহমত শাহকে নিয়ে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

ম্যাচের ১৯ ওভার পর বৃষ্টি আসলে সাময়িকভাবে খেলা বন্ধ হয়। এরপর প্রায় দেড় ঘণ্টা পর বৃষ্টি থামলে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে ৪১ ওভারে আনা হয়। বৃষ্টির পর বল হাতে নিয়েই জ্বলে ওঠেন আল আমিন। তার ঘূর্ণি বোলিংয়ে হাফ সেঞ্চুরির ৪ রান আগে ফিরে যান তামিম। এরপর রহমত শাহকেও তুলে নিয়ে মোহামেডানকে চাপে ফেলে দেন তিনি।

তামিম-রহমতকে তুলে নিয়েও সন্তুষ্ট হননি আল আমিন। এরপর রকিবুল হাসান, নাজমুল মিলন ও মেহেদী হাসান মিরাজকেও তুলে নেন এ তরুণ। শেষ পর্যন্ত তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৬-০-২৫-৫। আর তার বোলিং তোপে এদিন মাত্র ১৪২ রানেই গুটিয়ে যায় মোহামেডান।

মোহামেডানের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৬ রানের ইনিংস খেলেন তামিম। এছাড়া ২৪ রান করেন রহমত। প্রাইম ব্যাংকের আল আমিন জুনিয়রের দিনে দারুণ বোলিং করেছেন আল আমিন হোসেনও। ২৬ রানে ২টি উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি।

আরটি/এনইউ/পিআর

আপনার মন্তব্য লিখুন...