উল্লসিত চেরিশভ হতাশ পিজ্জি

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা মস্কো, রাশিয়া থেকে
প্রকাশিত: ০১:৪৫ এএম, ১৫ জুন ২০১৮

সংবাদ সম্মেলনে দুই কোচ ঢুকলেন দুই রকম অভিব্যক্তি নিয়ে। রাশিয়ান কোচ স্তানিস্লাভ চেরিশভের মুখে চওড়া হাসি। রাজ্যের বিরক্তি সৌদি কোচ হুয়ান অ্যান্থনি পিজ্জির চোখেমুখে। ম্যাচের ফল যদি ৫-০ হয় এবং তাও বিশ্বকাপের-জয়ী আর বিজিত দলের চেহারায়তো সে রেখাই ফুটে উঠবে।

চ্যালেঞ্জটা বেশি ছিল রাশিয়ার কোচ চেরিশভের। মাথায় ছিল সমালোচনার বোঝা। এই বিশ্বকাপের রাশিয়া যে গ্রুপে পড়েছে তাদের সৌদির ম্যাচটাই তাদের জন্য ছিল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এই ম্যাচের জয়ের ফাঁদই পেতেছিলেন দলটির কোচ। পিজ্জির শিষ্যরা ভালোভাবেই ধরা দিলেন স্বাগতিকদের ফাঁদে। বড় জয়, শুরুটা এমন মধুর কয় দলের হয় বিশ্বকাপে।

ম্যাচের নব্বই মিনিট আনন্দে হাত-পা নাচিয়েছেন চেরিশভ, বিরক্তিতে নিজের চুল টেনেছেন পিজ্জি। দুই দলেরই ম্যাচ বাকি উরুগুয়ে আর মিশরের বিরুদ্ধে। রাশিয়া পরের দুই ম্যাচে যাই করুক, শুরুর দুর্দান্ত জয়টা তাদের অনেক নির্ভার করে দিল।

‘ম্যাচের আগের দিন আমি নির্ভার ছিলাম। আজও নির্ভার। কারণ, আমি খেলোয়াড়দের চিনি। তারাও জানে কী করতে হবে। আমি ওদের সঙ্গে কাজ করে সম্মানবোধ করছি। তারা প্রথম লক্ষ্যটা বেশ ভালোভাবেই পূরণ করেছে। আমি ওদের কাছে কৃতজ্ঞ। তবে আমাদের চোখ এখন পরের ম্যাচে। মিশরের বিরুদ্ধে আমাদের ম্যাচটি আলাদা। জায়গা আলাদা, শহর আলাদা এবং স্টেডিয়ামও আলাদা। আমাদের আরো প্রস্তুত হতে হবে’-সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন রাশিয়ার কোচ।

p

সৌদি আরবের ডিফেন্স যে কত ভঙুর তার চিহ্ন লুঝনিকিতে রেখে গেল তারা। এমন ডিফেন্স নিয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেই ভরাডুবি মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির। গত বছর নিয়োগ পাওয়া আর্জেন্টাইন কোচ পিজ্জি বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না এভাবে তাদের অবাক করে দেবে রাশিয়া।

‘এটা একটা কঠিন ম্যাচ ছিল। যে ম্যাচে আমরা অপ্রত্যাশিতভাবে বড় ব্যবধানে হারলাম। রাশিয়া অনেক ভালো খেলেছে। আমরা ভালো কিছু করতে পারিনি। এ ফলের একটাই ব্যাখ্যা হতে পারে-বাজে পারফরম্যান্স। রাশিয়ান কোচ যেমন বড় জয়ের কথা ভুলে পরের ম্যাচে নজর দেয়া কথা বলেছেন। ঠিক তেমন বলেছেন সৌদি আরবের কোচও। ‘আমাদের এ ম্যাচ ভুলে যেতে হবে। আমরা এখন নতুন ম্যাচের কথা ভাবছি।’

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে দুই কোচের দুই রকম অভিজ্ঞতা হলেও তারা আবার মিলে গেলেন একবিন্দুতে। হয়ে যাওয়া ম্যাচটি ভুলে পরের দুই ম্যাচের কৌশল নির্ধারণে খাতা-কলম খুলে বসবেন দুই থিঙ্কট্যাংক। রাশিয়ার কোচ মুখে যাই বলুক অনেকদিন মনে রাখতে চাইবেন এ ম্যাচটি। সৌদি কোচ আসলেই চাইবেন ম্যাচটি ভুলে যেতে।

আরআই/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :