২৪০ করার পর বাকিটা ছিল বোনাস : সাকিব

আরিফুর রহমান বাবু
আরিফুর রহমান বাবু আরিফুর রহমান বাবু , বিশেষ সংবাদদাতা সাউদাম্পটন থেকে
প্রকাশিত: ০১:৫২ এএম, ২৫ জুন ২০১৯

 

দিনদুয়েক আগে একই মাঠে মাত্র ২২৪ রানের সংগ্রহ নিয়েও জয় পেয়েছিল ভারত। আফগানিস্তানকে তারা বেঁধে ফেলেছিল ২১৩ রানে। খুব কাছে গিয়েও জয় পায়নি আফগানরা।

তবে একই মাঠে খেলা হওয়ায় সোমবার বাংলাদেশের বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসী ছিলো তারা। এমনকি মজার ছলে হলেও, নিজেদের ফেবারিট ঘোষণা দিয়েছিলেন আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবী। তাদের অধিনায়ক হুমকি দিয়েছিলেন বাংলাদেশকে সঙ্গে নিয়ে ডোবার।

কিন্তু মাঠে তাদের এসব কথার প্রতিফলন দেখা যায়নি একদমই। রশিদ খান, মুজিব উর রহমানদের বিপক্ষে ভারত যে মাঠে থেমেছিল ২২৪ রানে। সেখানেই বাংলাদেশ দল দাঁড় করায় ২৬২ রানের সংগ্রহ। যা কি-না প্রয়োজনের চেয়ে ২৫ রান বেশি ছিলো বলেই মনে করেন ম্যাচের নায়ক সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশ দল পরিকল্পনা করেছিল, সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ২৪০ রানের সংগ্রহ দিয়েই ম্যাচ জেতা সম্ভব। তাই টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামার সময় দলের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিলো ২৪০ রানই। ফলে এরপরে যত রান হয়েছে তা একপ্রকার বোনাস বলেই মন্তব্য করেছেন সাকিব।

দলের সংগ্রহ ২৬২ রান পর্যন্ত যাওয়ার ক্ষেত্রে সাকিবের অবদানও কম নয়। ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫১ রান যে করেছেন তিনি। মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে গড়েছেন ৬১ রানের কার্যকরী জুটিও। পরে মুশফিক আর মোসাদ্দেক মিলে দলকে পৌঁছে দিয়েছেন ২৬২ রানের সংগ্রহে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে সাকিব জানিয়েছেন ২৪০ রান করার পরই জয়ের ব্যাপারে প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছিল দল। তিনি বলেন, ‘স্কোরবোর্ডে পর্যাপ্ত রান হয়েছে- এটা আমরা জানতাম। উইকেটটা এমন ছিল যে এখানে কোন দলের পক্ষেই ৩০০-৩৫০ রান করা সম্ভব ছিল না। ওদের ৩জন কোয়ালিটি স্পিনারদের আমরা ভালভাবেই সামলেছি। সে কারণেই আমরা ২৬২ রান করতে পেরেছি।’

এসময় সাকিব স্পষ্ট জানিয়ে দেন দলের প্রাথমিক লক্ষ্য যে ছিলো ২৪০ রান, ‘আমাদের নুন্যতম লক্ষ্য ছিল ২৪০। আমরা ধরেই নিয়েছি এর বেশি হলে সেটা হবে বোনাস। আমার মনে হয় ঠিক সেটাই আমরা করতে পেরেছি। প্রত্যাশার চাইতেও ২৫ রান আমরা বেশি করেছি। উইকেটটা সহজ না। তাই ডট বল করে ওদের চাপে রাখতে চেয়েছি এবং সেটা পেরেছি।’

এআরবি/এসএএস

আপনার মতামত লিখুন :