হকির দ্বিতীয় ম্যাচেও ৬ গোলে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:০৪ পিএম, ২২ আগস্ট ২০১৯

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২১ ও ভারতের জাতীয় হকি একাডেমির মেয়েদের মধ্যে অভিজ্ঞতার পার্থক্য অনেক। ভারতের মেয়েরা তিন বছর ধরে অনুশীলন করছে একাডেমিতে, বাংলাদেশের মেয়েদের প্রস্তুতি মাত্র তিন মাসের। দুই দেশের মেয়েদের মাঠের লড়াইয়েও পরিস্কার ফুটে উঠেছে পার্থক্যটা।

বাংলাদেশের মেয়েরা ৬ ম্যাচ সিরিজের প্রথমটি হেরেছিল ৬-০ গোলে, আজ (বৃহস্পতিবার) দ্বিতীয় ম্যাচের ফলও তাই। অতিথি মেয়েরা সিরিজে এগিয়ে গেলো ২-০ ব্যবধানে।

প্রথম ম্যাচের পর মেয়েদের প্রধান কোচ তারিক-উজ্জামান নান্নু বলেছিলেন, ‘দ্বিতীয় ম্যাচে আমাদের মেয়েরা ভালো ফলাফল করতে পারবে ঠিক তা নয়। তবে আমাদের লক্ষ্য থাকবে পারফম্যান্সের উন্নতি।’

দ্বিতীয় ম্যাচে সেটা দেখা গেছে। প্রথম দিনের তুলনায় এ ম্যাচে স্টিকের কারুকাজ একটু ভালো ছিলো লাল-সবুজ জার্সিধারী মেয়েদের।

হার, হারের ব্যবধান- এসব দিয়ে নতুন এই মেয়েদের তুলনা করা যাবে না। বাংলাদেশ দলের কোচিং স্টাফের কেউ সেটা করছেনও না। বরং দুই ম্যাচে ১২ গোল খাওয়ার পরও তাদের চোখেমুখে কিছুটা আশার আভা। কারণ, মেয়েদের হকি কেবলতো শুরু আমাদের।

প্রথম ম্যাচে ভারতীয় মেয়েদের প্রথম কোয়ার্টারে আটকে রেখেছিল বাংলাদেশের কিশোরীরা। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য সফরকারী দলটি এগিয়ে যায় প্রথম কোয়ার্টারেই। ৮ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করেন ভারতের সাকশি।

তবে ভারতীয় একাডেমি দলটি ম্যাচটি নিজেদের করে ফেলে মধ্য বিরতির আগের ৫ মিনিটে। ২৫, ২৭ ও ২৯ মিনিটে তিনটি গোল করে ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে বিরতিতে যায় তারা। দ্বিতীয়ার্ধে করে আরো দুই গোল।

দুই দেশের মেয়েদের মধ্যেকার সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ আগামীকাল (শুক্রবার)। এ ম্যাচটি হবে ফ্লাডলাইটে। শুরু হবে সন্ধ্যা ৭ টায়।

আরআই/আইএইচএস/পিআর