বর্তমানে দেশের এক নম্বর খেলা আরচারি : রোমান সানা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:৫৯ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এশিয়া কাপ ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং আরচারি (স্টেজ-৩) তে সোনাজয়ী রোমান সানা বলেছেন, বর্তমানে দেশের এক নম্বর খেলা আরচারি। আজ (সোমবার) দুপুরে ফিলিপাইন থেকে দেশে ফিরে হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গণমাধ্যমকে রোমান সানা বলেছেন,‘জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে ক্রিকেট সবার ওপরে। কিন্তু গেমস সিস্টেম আর পদকের তালিকা বিবেচনা করলে আমি মনে করি বাংলাদেশে আরচারি এক নম্বর গেম। আরচারি নতুন গেম। বছর পনের ধরে বাংলাদেশে খেলা হচ্ছে। আস্তে আস্তে আরো জনপ্রিয় হবে।’

আগামী টোকিও অলিম্পিক গেমসে খেলার যোগ্যতা অর্জন করা আরচার রোমান সানা বলেন, ‘অলিম্পিকের আগে এশিয়া কাপের এই সাফল্য আমার জন্য অনুপ্রেরণা। কারণ আমি কঠোর পরিশ্রম করছি। ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছি এবং ফলাফলও আসছে। আমি আশা করি, এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে অলিম্পিকে পদক জেতা সম্ভব। কিন্তু অলিম্পিকে পদক জিততে হলে আমাকে সেভাবে তৈরি করতে হবে। কারণ, এশিয়া পর্যায়ের খেলা আর অলিম্পিক গেমসের বিস্তর পার্থক্য। এখনো ৯ মাস সময় আছে আমার হাতে। আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে নিজেকে সেভাবে প্রস্তুত করতে পারি।’

ধারাবাহিক সাফল্যের জন্য তিনি বাংলাদেশ আরচারি ফেডারেশন, তার প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ আনসার, পৃষ্ঠপোষক সিটি গ্রুপ, মধুমতি ব্যাংকের অবদানের কথাও উল্লেখ করেছেন রোমান সানা।

অলিম্পিক গেমস প্রসঙ্গে খুলনার এ যুবক বলেন, ‘আমি যখন কোনো টুর্নামেন্টে খেলতে যাই, তখন আপনাদের বলি- পদক জেতা কঠিন। কারণ, আমরা জানি না সামনে কি হবে। তবে সব সময়ই আমি লক্ষ্য স্থির করি, সেমিফাইনাল অথবা কোয়ার্টার ফাইনাল। সেমিফাইনালে খেলার প্রত্যাশা পূরণ হলে পরের কাজগুলো সহজ হয় আমার জন্য। সুতরাং আমার প্রত্যাশা সেমিফাইনাল অথবা কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত উঠতে পারবো।’

এশিয়া কাপের এই সাফল্যের পর দেশের মানুষ আপনার সম্পর্কে জানতে চান। আপনার সাফল্যে সবাই গর্বিত। সোনাজয়ী হিসেবে এই মানুষগুলোর প্রতি আপনার বার্তা কি? ‘আমি বলেছি যে, এখন দেশের এক নম্বর খেলা আরচারি। খেলাটি যদি আরো বেশি প্রচার পায়, তাহলে আরো জনপ্রিয় হবে। অধিক মানুষ যদি এ খেলা নিয়ে আগ্রহ দেখায় এবং প্রতিযোগিতার পরিমাণ বৃদ্ধি পায় তাহলে আগামীতে আরো ভালো রেজাল্ট হবে। এশিয়া কাপে পাওয়া সোনার পদকটি আমি দেশের মানুষকে উৎসর্গ করলাম’-বলেছেন রোমান সানা।

আরআই/এমএমআর/এমএস