মাবিয়ার হাত ধরে তিনদিন পর স্বর্ণ জিতলো বাংলাদেশ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯

গত এসএ গেমসেও ভালোত্তোলনে বাংলাদেশকে স্বর্ণ উপহার দিয়েছিলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। এবারও স্বর্ণ জেতার জন্য ফেবারিট ছিলেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত হতাশ করলেন না ভারোত্তোলনের এই স্বর্ণকন্যা। নেপালের কাঠমান্ডুতে চলমান দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে ভারোত্তোলনে মেয়েদের ৭৬ কেজি ওজন শ্রেণীতে স্বর্ণ জিতেছেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত।

এ নিয়ে তিনদিন পর নেপাল গেমসে স্বর্ণের দেখা মিললো বাংলাদেশের। সব মিলিয়ে এটি বাংলাদেশের পঞ্চম স্বর্ণ পদক।

নারী কারাতেকা হোমায়রা আক্তার অন্তরার দেশের চতুর্থ স্বর্ণ জয়ের পর আর কোনো ক্রীড়াবিদ যখন জাতীয় সঙ্গীত বাজাতে পারেননি তখন সবাই তাকিয়ে ছিলেন ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্তের দিকে। আজ (শনিবার) তার ইভেন্ট ঘিরে দৃষ্টি ছিল সবার।

Mabia

 

সেই মাবিয়াই আবার সোনার হাসি ফোটালেন বাংলাদেশের কন্টিনজেন্টের মুখে। ২০১৬ সালের পর আর ২০১৯- পরপর দুই এসএ গেমসে স্বর্ণ জিতে অনন্য রেকর্ড করলেন দেশের নারী ক্রীড়াবিদ হিসেবে। এর মধ্যে দিয়ে তিনদিন পর আবার সোনার খবর এলো নেপাল থেকে।

মাবিয়ার এই স্বর্ণজয়ের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ গত এসএ গেমসের সাফল্যকে ছাড়িয়ে গেলো। বাংলাদেশের ঝুলিতে এখন স্বর্ণ ৫টি। গত গেমসে জিতেছিল ৪টি।

মাবিয়া আক্তার সীমান্ত স্ন্যাচে ৮০ কেজি এবং ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১০৫ কেজিসহ মোট ১৮৫ কেজি ওজন তুলে সেরা হয়েছেন।

স্বর্ণ জিততে মাবিয়া পেছনে ফেলেছেন শ্রীলঙ্কার বিসি প্রিয়ান্থি ও নেপালের তারা দেবিকে। স্ন্যাচে ৮৩ কেজি ও ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ১০১ কেজিসহ প্রিয়ান্থি তুলেছেন ১৮৪ কেজি। স্ন্যাচে ৭৫ কেজি ও ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ৯৭ কেজি সহ মোট ১৭২ কেজি ওজন তুলেছেন তারা দেবি।

আরআই/আইএইচএস/এমএস