শচিন তো স্বীকার করবেই না : ৯ বছর আগের দাবিতে অটল আফ্রিদি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪২ পিএম, ০৭ জুলাই ২০২০

‘পাকিস্তানের কাছে হারতে হারতে এমন অবস্থা হতো, ভারতীয়রা ম্যাচ শেষে মাফ চাইতে আসতো’-সম্প্রতি শহিদ আফ্রিদির এমন মন্তব্যে চটেছেন ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকরা। এরই মধ্যে নতুন করে পুরোনো বিতর্ক উস্কে দিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক। শচিন টেন্ডুলকারকে নিয়ে ৯ বছর আগের এক দাবির স্বপক্ষে নিজের শক্ত অবস্থান ব্যক্ত করলেন আবারও।

২০১১ সালে পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার নিজের লেখা এক বইতে দাবি করেন, ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকার তার মুখোমুখি হতে ভয় পেতেন। সতীর্থের এমন দাবিকে আরও জোরালো করতে আফ্রিদিও বলেন, ‘সে (শচিন) শোয়েবকে ভয় পেতো। আমি নিজেই সেটা দেখেছি। আমি স্কোয়ার লেগে ফিল্ডিং করছিলাম, যখন শোয়েব বল করতে আসছিল, দেখলাম তার (শচিন) পা কাঁপছে।’

৯ বছর আগের সেই দাবিতে এখনও অটল আছেন আফ্রিদি। পাকিস্তানি সাংবাদিক জয়নব আব্বাসের সঙ্গে ইউটিউব চ্যানেলের এক লাইভে পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার বলেন, ‘দেখুন, শচিন টেন্ডুলকার নিজে কিন্তু কখনও আপনাকে বলবেন না যে-আমি ভয় পেয়েছিলাম। শোয়েবের এমন অনেক স্পেল আছে, যাতে শুধু শচিন নন, বিশ্বসেরা অনেক ব্যাটসম্যানই ঝাঁকুনি খেতেন।’

ব্যাটসম্যানদের কাছাকাছি থাকলে সেটা ফিল্ডারের জন্য দেখা সহজ হয়, এমন যুক্তি আফ্রিদির। সেই বক্তব্যে জোর দিয়ে আবারও তিনি বললেন, ‘যখন আপনি মিড অফ বা কভারে দাঁড়াবেন, সেটা দেখতে পাবেন। খেলোয়াড়দের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ সেখান থেকে বোঝা যায়। একজন ব্যাটসম্যান চাপে আছে, স্বাভাবিকভাবে খেলতে পারছে কি না, সহজেই বোঝা যায়। আমি বলছি না, শচিন সবসময়ই শোয়েবকে ভয় পেতো। তবে শোয়েবের কয়েকটি স্পেলে শচিনসহ বিশ্বসেরা অনেককেই পিছিয়ে খেলতে বাধ্য করেছে।’

আফ্রিদি যোগ করেন, ‘বিশ্বকাপের সময় তাকে (তরুণ) সাঈদ আজমলের বিপক্ষেও ভয় পেতে দেখেছি। এটা কোনো বড় বিষয় নয়। খেলোয়াড়রা কখনও কখনও চাপ অনুভব করে, যখন তার কাছে সব কিছুই কঠিন লাগে।’

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]