ক্রীড়া উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ ও তুরস্ক

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩৯ পিএম, ১৬ জুন ২০২১

আগামীতে যুব ও ক্রীড়া উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ ও তুরস্ক। এ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে অচিরেই সমঝোতা চুক্তি সই হবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর সাথে সৌজন্যে সাক্ষাৎ করেন। সৌজন্য সাক্ষাতের পূর্বে প্রতিমন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত স্বেচ্ছাসেবী যুব সংগঠন ব্ল্যাডম্যানের আয়োজনে তরুণদের অংশগ্রহণে ১০,০০০ বৃক্ষরোপণের কর্মসূচি ‘গ্রীণজেন মুভমেন্ট’ ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘তুরস্কের রাষ্ট্রদূত আমাদের সাথে যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের প্রস্তাব দিয়েছেন। অচিরেই এ বিষয়ে উভয় দেশের পক্ষ হতে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করা হবে। এ সমঝোতা স্মারকের মধ্যে দিয়ে উভয় দেশের মধ্যে যুব বিনিময় কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে এবং উভয় দেশের অভিজ্ঞ কোচের মাধ্যমে খেলোয়াড়দের উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে, যা বন্ধুপ্রতীম দুই রাষ্ট্রের মধ্যে এক নবদিগন্তের সূচনা করবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেন তুরস্কের রাষ্ট্রদূত এবং আশা প্রকাশ করেন যে তুরস্ক সরকার বাংলাদেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাণিজ্য অবকাঠামোগত উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারকে সার্বিক সহযোগিতা করবে।’

তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান বলেন, ‘মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত নির্যাতিত অসহায় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ সরকার সারা বিশ্বে মানবতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আমি বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। আশা করি, রোহিঙ্গা ইস্যুতে পূর্বের ন্যায় ভবিষ্যতেও তুরস্ক বাংলাদেশের পাশেই থাকবে।’

এ সময়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী তুরস্ক সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘তুরস্ক আমাদের ভালো বন্ধু। আমি আশা করি, তুরস্ক সরকার বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি দক্ষ জনশক্তি তুরস্কের শ্রমবাজারে বিনিয়োগ করবে।’

প্রতিমন্ত্রী এ সময় ঢাকা ওআইসি ইয়ুথ ক্যাপিটাল ২০২০ নির্বাচনে তুরস্কের অকুণ্ঠ সমর্থন ও সহযোগিতা প্রদানের জন্য দেশটির সরকারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। বৈঠকে যুব ও ক্রীড়ার সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেন ও মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরআই/এমএমআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]