প্রতিবন্ধীদের জন্য ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ করবে সরকার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:২৭ পিএম, ১২ জুলাই ২০২১

সমাজের সুবিধাবঞ্চিত ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী তথা প্রতিবন্ধীদের জন্য আন্তর্জাতিকমানের ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি সোমবার দুপুরে পার্সনস উইথ সেরিব্রাল পালসি ফাউন্ডেশন (পিসিপিএফ) আয়োজিত প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিয়ে ভার্চুয়াল দাবা প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেছেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রায় ৪৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে সাভারে প্রতিবন্ধীদের জন্য তৈরি করা হবে অত্যাধুনিক ক্রীড়া কমপ্লেক্স। যেখানে থাকবে ২টি বেসমেন্টসহ ১১ তলা একাডেমিক ভবন, ডরমেটরি, আবাসিক ভবন, জিমনেশিয়াম, সুইমিংপুল, মসজিদ, ফুটবল মাঠ, গ্যালারি ও ক্রিকেট মাঠ । এই ক্রীড়া কমপ্লেক্স তৈরি করা হলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের খেলাধুলার সুযোগ তৈরি হবে। এর মাধ্যমে তাদের সুস্থ বিনোদনের পথ তৈরি করা সম্ভব হবে। এছাড়াও আমরা জাতীয় সংসদ ভবনের পাশের খোলা মাঠে প্রতিবন্ধীদের জন্য একটি দৃষ্টিনন্দন ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ করে দিচ্ছি। ইতোমধ্যেই আমরা কমপ্লেক্সের নকশা চূড়ান্ত করেছি।’

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘সমাজের একজন সুস্থ ও স্বাভাবিক নাগরিকের মতো প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদেরও সমঅধিকার ও সুযোগ পাওয়ার অধিকার রয়েছে। সেই সুযোগ দিয়ে সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনযাপনের পথ তৈরি করা গেলে তাদেরও সমাজের মূলধারায় অন্তর্ভুক্ত করা সম্ভব হবে। এর জন্য প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিশেষ স্কুল, কারিগরি সেবা ও পুনর্বাসন ব্যবস্থা যেমন প্রয়োজন, তেমনই প্রয়োজন ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক পরিবেশ।’

বর্তমান সরকারকে প্রতিবন্ধীবান্ধব উল্লেখ করে মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী প্রতিবন্ধীদের বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক। তিনি প্রতিবারই স্পেশাল অলিম্পিক গেমসে সাফল্য অর্জনকারীদের পুরস্কার প্রদান করে থাকেন এবং নিজেই তাদের গণভবনে সংবর্ধিত করেন। তার সুযোগ্য কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অটিজম নিয়ে প্রশংসনীয় কাজ করছেন। ইতিমধ্যে তিনি সারাবিশ্বে এ ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। আমি তাকে ও তার এ মহতী কর্মকাণ্ডের জন্য অভিনন্দন জানাই।’

আমাদের দেশের প্রতিবন্ধীরা অত্যন্ত মেধাবী উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘গত ২৫ বছর স্পেশাল অলিম্পিকে বাংলাদেশ এ পর্যন্ত ২১৬টি স্বর্ণ, ১০৯টি রৌপ্য এবং ৮৪টি ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছে।’

ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে পিসিপিএফ-এর সভাপতি শেখ এনায়েত করিমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিউরো ডেভলপমেন্টাল সুরক্ষা ট্রাস্টের ব্যবস্হাপনা পরিচালক ড. মো. আনোয়ার উল্যাহ এবং বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক মাসুদুর রহমান মল্লিক প্রমুখ।

আরআই/এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]