বুড়ো হাড়ের ভেলকি দেখালেন ইরানের জাভাদ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৪৩ পিএম, ২৪ জুলাই ২০২১

বয়স তার ৪১। এবারই অলিম্পিকে অভিষেক হলো ইরানিয়ান শ্যুটার জাভাদ ফারোগির। এই বয়সে যার কোচিং করানোর কথা, তার কিনা অভিষেক হলো অলিম্পিকে। শুধু অভিষিক্ত হওয়াই নয়, নিজের প্রথম এবং শেষ আসরকে অলিম্পিকের সোনা দিয়ে রাঙালেন ইরানের শ্যুটার জাভাদ ফারোগি।

আজ টোকিও অলিম্পিকের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে তাক লাগিয়ে দেন জাভাদ ফরোগি। অভিষেক অলিম্পিকেই রীতিমতো রেকর্ড গড়ে জিতলেন সোনার পদক! আসাকা শুটিং রেঞ্জে ২৪৪.৮ পয়েন্ট পেয়ে অলিম্পিক রেকর্ড গড়েছেন জাভাদ।

৪১ বছর বয়সী এ শুটার স্নায়ুক্ষয়ী ফাইনালে হারিয়েছেন সার্বিয়ার শুটার দামির মিকেচকে। ২৩৭.৯ পয়েন্ট পান মিকেচ। ব্রোঞ্জ জিতেছেন চীনের পাং উয়েই। তার পয়েন্ট ২১৭.৬। অলিম্পিক শুটিংয়ে এটাই প্রথম সোনার পদক ইরানের।

Javad

স্বর্ণ জয়ের পর জাভাদ বলেন, ‘বাছাইপর্বে স্নায়ুচাপে ভোগায় ফাইনালে এসে আর কোনো চাপে ভুগিনি। মাথা ঠান্ডা রেখে নিজের কাজটা করতে পেরেছি।’

এই ইভেন্টে ডিফেন্ডিং অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন ভিয়েতনামের হোয়াং জুয়ান ফাইনালেই উঠতে পারেননি। এ বছর দারুণ ফর্মে আছেন ফারোগি। আইএসএসএফ বিশ্বকাপে সোনার পদক জেতেন গত জুনে ক্রোয়েশিয়ায়। এবার অলিম্পিক ফাইনালে কঠিন প্রতিপক্ষদের মুখোমুখি হলেন ফারোগি।

১৯৫৬ মেলবোর্ন অলিম্পিকে ভারোত্তোলনে ৩৮ বছর বয়সে ব্রোঞ্জ জেতেন ইরানের মাহমুদ নামদাজো। তার গড়া রেকর্ড ভাঙলেন ফারোগি।

প্রতিপক্ষের সঙ্গে ৬.৯ পয়েন্ট ব্যবধানে সোনার পদক পেয়েছেন তিনি। ফাইনালে শুরুর দিকে ১০ পয়েন্টের রিং নিয়মিত লক্ষ্যভেদ করে বেশ ভালো ব্যবধানেই এগিয়ে যান। দুটি শট বাকি থাকতে তার লিড ছিল ৪.২ পয়েন্ট। শেষ পর্যন্ত তা ৬.৯ পয়েন্টে উন্নীত করে অলিম্পিক রেকর্ড গড়েন।

শুটিংয়ে ইরানের হয়ে ইতিহাস গড়ার পর জাভাদের পুরনো একটি ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ে টুইটারে। ইরানের এক প্রতিভা অন্বেষণ অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন তিনি। দূরে টেবিলে এক কোনায় একটি চিকন লোহার পেরেক পোঁতা হয়। এয়ারগান দিয়ে তা লক্ষ্যভেদ করে তাক লাগিয়ে দেন ইরানের এই শ্যুটার। এরপর থেকেই তিনি স্বপ্ন সারথি হয়ে ওঠেন ইরানিয়ানদের।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]