রিয়াল ছেড়ে ম্যানইউতে যোগ দিলেন ভারানে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৫৮ পিএম, ২৮ জুলাই ২০২১

সার্জিও রামোসের পর আরও একজন নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডারকে ছেড়ে দিলো রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়ালের টানা চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের অন্যতম কারিগর ছিলেন কিন্তু রাফায়েল ভারানে। ২০১৮ ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়েও অনেক বড় অবদান ছিল ভারানের।

সেই রাফায়েল ভারানেকে ছেড়ে দিল রিয়াল মাদ্রিদ। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছে, ভারানের সঙ্গে তাদের চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার কথা। আনুষ্ঠানিকতা বলতে, শুধুমাত্র মেডিক্যাল টেস্টেই বাকি রয়েছে।

বহুদিন ধরেই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা তথা ফ্রান্স বিশ্বকাপজয়ী ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানের ম্যানইউতে যোগ দেওয়া নিয়ে জোর জল্পনা চলছিলই। শেষ পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবেই ম্যানইউর পক্ষ থেকে ভারানের দলে যোগ দেওয়ার কথা জানিয়ে দেয়া হল।

প্রায় এক দশক আগে ভারানের ক্যারিয়ারের একদম শুরুতেই তাকে দলে নিতে আগ্রহী ছিলেন তৎকালীন রেড ডেভিলস কোচ স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন; কিন্তু তখন তরুণ ভারানে ম্যানইউর পরিবর্তে রিয়াল মাদ্রিদকে বেছে নেন। এক দশক পরে হলেও ফরাসী এই ডিফেন্ডারকে রেড ডেভিলদের জার্সিতে দেখা যাবে এবার।

গত এক দশকে একাধিক লা লিগাসহ ভারানে ঝুলিতে রয়েছে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও জাতীয় দলের হয়ে জেতা বিশ্বকাপ। ফুটবলার হিসেবে শারীরিক দিক থেকে যেমন নিজের সেরা সময়ে রয়েছেন তিনি, তেমন অভিজ্ঞতাতেও এগিয়ে ২৮ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডার। এমন এক ফুটবলারকে নিয়ে গত মৌসুমের নড়বড়ে ডিফেন্স ঠিক করতে বদ্ধপরিকর ইউনাইটেড।

ভারানে নিজেও ম্যানইউতে যোগ দিতে ইচ্ছুক ছিলেন। দুই ক্লাবের মধ্যে ট্রান্সফারের মূল্য নিয়ে কথাবার্তা চললেও তিনি রিয়াল কর্মকর্তাদের আগেই প্রিমিয়র লিগে খেলার অভিজ্ঞতা লাভ করার ইচ্ছের কথা জানিয়ে দেন। শেষ পর্যন্ত ৫০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে মাদ্রিদ থেকে ম্যানচেস্টারে গেলেন তিনি।

২০২৫ সাল পর্যন্ত ম্যানইউর সঙ্গে চুক্তি করেছেন ভারানে। তবে চুক্তি এক বছর বাড়ানোরও সুযোগ থাকছে। এই সপ্তাহেই ইংল্য়ান্ডে নিজের মেডিকালের জন্য পৌঁছে যাবেন ভারানে। আইসোলেশনের সময় কাটিয়েই ম্যানইউতে মেডিকেল হওয়ার পর তার চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে। জেডন স্যানচোর পর এই মৌসুমে দ্বিতীয় বড় খেলোয়াড় হিসাবে ইউনাইটেডে যোগ দিচ্ছেন ভারানে।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]