‘কোয়ালিফাই করে অলিম্পিক খেলতে চাই’

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:২৪ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২১

সাঁতারু আরিফুল ইসলাম- টোকিও অলিম্পিকে ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইল হিটে ব্যক্তিগত সেরা টাইমিং করে হিটেই বাদ পড়েছেন কিশোরগঞ্জের এ যুবক। আগামীতে তিনি ওয়াইল্ড কার্ড নয়, অলিম্পিক খেলতে চান সরাসরি কোয়ালিফাই করে।

নিজের ইভেন্টের পর টোকিও থেকেই তিনি কথা বলেছেন এ প্রতিবেদকের সঙ্গে। সেই নাতিদীর্ঘ সাক্ষাৎকারটি নিচে দেয়া হলো-

জাগো নিউজ : প্রথমবার অলিম্পিকে অংশ নিয়ে নিজের সেরা টাইমিং করলেন। কেমন অনুভূতি?

আরিফুল ইসলাম : অবশ্যই আমি খুশি। কারণ, অলিম্পিকের মতো আসরে নিজের সেরাটা খেলার টার্গেট নিয়েছিলাম। সেটা পেরেছি।

জাগো নিউজ : টাইমিং কি আরও ভালো হতে পারত?

আরিফুল ইসলাম : হ্যাঁ! তা পারত। তবে শুরুতে একটু নার্ভাস ছিলাম। সবাই বলেছিলেন রিল্যাক্স থাকতে। আমিও চেষ্টা করেছিলাম। তারপরও নার্ভাসনেস চলে এলো। ফিনিশিং যেমন চেয়েছিলাম তেমন হয়েছে। তবে আরও ভালো করা উচিত।

জাগো নিউজ : সেই ভালোটা কী? অনেক পেছনে পড়েছেন সেটা এগিয়ে আনা?

আরিফুল ইসলাম : ওগুলো না। আমি চাই আগামীতে কোয়ালিফাই করে অলিম্পিকে খেলতে। এর একটা অনুভূতিই আলাদা।

জাগো নিউজ : অলিম্পিক খেলার পর সামনে লক্ষ্য কী?

আরিফুল ইসলাম : আমরা অনেকদিন এসএ গেমসে স্বর্ণ পাই না সাঁতারে। খারাপ লাগে। নেপাল এসএ গেমসেই আমি স্বর্ণ পেতে পারতাম। দুর্ভাগ্য অল্পের জন্য পরিনি। পরের এসএ গেমসে স্বর্ণ জিততে চাই।

জাগো নিউজ : কোন ইভেন্টে স্বর্ণ জিততে চান?

আরিফুল ইসলাম : ৫০ মিটার বেস্ট্র স্ট্রোক ও ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে আমি স্বর্ণ জিতে প্রস্তুতি নেবো। ব্রেস্ট স্ট্রোক আমার প্রিয় ইভেন্ট।

জাগো নিউজ : আপনি তো আইওসি’র স্কলারশিপ নিয়ে ফ্রান্সে অনুশীলন করেছেন। নিশ্চয়ই সেটা আপনার কাজ এগিয়ে দিয়েছে?

আরিফুল ইসলাম : অবশ্যই। আমি ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে এই জুলাই পর্যন্ত ফ্রান্সে উন্নত ট্রেনিং করেছি। এতে নিজের বেশ উন্নতিই হয়েছে বলব।

জাগো নিউজ : আপনাকে ধন্যবাদ। ক্যারিয়ার সেরা টাইমিংয়ের জন্য অভিনন্দন।

আরিফুল ইসলাম : আপনাকেও ধন্যবাদ।

আরআই/এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]