রেকর্ড গড়েই বিশ্বের দ্রুততম মানবী বোল্টের দেশের থম্পসন হেরাহ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২১

অলিম্পিকের সবচেয়ে আকর্ষণীয় ইভেন্ট ১০০ মিটার স্প্রিন্ট। দ্রুততম মানব-মানবী নির্ধারিত হয় এই ইভেন্টের মাধ্যমেই। উসাইন বোল্ট নেই। কিন্তু তার দেশ জ্যামাইকার মেয়েরাই জিতে নিলো টোকিও অলিম্পিকের দ্রুততম মানবীর খেতাব।

রেকর্ড গড়েই বিশ্বের দ্রুততম মানবীর শিরোপা জিতে নিলেন এলেইন থম্পসন হেরাহ। ১০দশমিক ৬১ সেন্ডে সময় নিয়ে অলিম্পিক রেকর্ড গড়েন তিনি।

১০০ মিটার স্প্রিন্টে পরের দুই বিজয়ীও ক্যারিবীয় দেশ জ্যামাইকার। শেলি অ্যান ফ্রেজার প্রাইস ১০ দশমিক ৭৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে জিতলেন রৌপ্য পদক এবং একই দেশের আরেক স্প্রিন্টার শেরিকা জ্যাকসন ১০ দশমিক ৭৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে জিতলেন ব্রোঞ্জ পদক।

100M sprint

৩৩ বছরের রেকর্ড ভাঙেন হেরাহ। ১৯৮৮ সালের সিউল অলিম্পিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ-জয়নার ১০ দশমিক ৬২ সেকেন্ড সময় স্বর্ণ জিতেছিলেন। এতদিন এটাই ছিল অলিম্পিকের সেরা। এবার মাত্র ০ দশমিক ১ সেকেন্ড কম সময়ে অলিম্পিকে নতুন রেকর্ড তৈরি করলেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হেরাহ।

তবে থম্পসনের এবারের টাইমিং নারীদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টের ইতিহাসে দ্বিতীয় সেরা। ১৯৮৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানাপোলিসে অলিম্পিক ট্রায়ালে ১০ দশমিক ৪৯ সেকেন্ড নিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন গ্রিফিত। সেটা আজও বহাল রয়েছে।

thompson

তিনটি স্বর্ণ জয়ের আশা নিয়ে এবার টোকিও অলিম্পিকের ট্র্যাকে নেমেছিলেন শেলি অ্যান ফ্রেজার প্রাইস। চলতি বছরের সেরা টাইমিংও করেছিলেন তিনি। ১০ দশমিক ৬৩ সেকেন্ড সময় নিয়েছিলেন তিনি চলতি বছরের একটি স্প্রিন্টে। এছাড়া টোকিও অলিম্পিকের সেমিফাইনালেও হেরাহ-এর চেয়ে এগিয়ে ছিলেন প্রাইস।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারলেন না তিনি। থম্পসন হেরাহ-এর কাছেই হেরে গেলেন। তিনি টাইমিং করলেন ১০ দশমিক ৭৪ সেকেন্ড।

আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]