খেলোয়াড় অপহরণ-ভাঙচুর: পাল্টাপাল্টি অভিযোগ মোহামেডান-মেরিনার্সের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:২৯ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

হকিতে দলবদল। শব্দ দুটি যেন হারিয়েই গিয়েছিল দেশের তৃতীয় জনপ্রিয় খেলাটি থেকে। কারণ ২০১৮ সালের এপ্রিলের পর খেলোয়াড়রা আর ক্লাব বদলের সুযোগ পাননি। পাবেন কী করে? তিন বছর ধরে তো ঘরোয়া হকির শীর্ষ লিগ ফাইলবন্দি হয়েই আছে।

প্রায় সাড়ে তিন বছর পর রোববার শুরু হচ্ছে দলবদল। চলবে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ঝিমিয়ে পড়া হকির দলবদলে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে মোহামেডান ও মেরিনার ইয়াংসের মধ্যে একজন খেলোয়াড় নিয়ে টানাটানিতে।

রাসেল মাহমুদ জিমি, মো. আশরাফুল কিংবা মামুনুর রহমান চয়ন নন, যাকে নিয়ে দুই ক্লাবের রশি টানাটানি সেই খেলোয়াড় অখ্যাত। সারোয়ার মুর্শেদ শাওন। নামটি শুনে নিশ্চয়ই সবাই তাজ্জব হবেন- এ আবার কে? হকিতে এর নাম তো কখন শুনিনি।

অজানা-অচেনা ও অখ্যাত এই শাওনই এবারের হকির দলবদলের সবচেয়ে গরম খবর। যার জন্য মোহামেডান ও মেরিনার্সের মধ্যে মারমুখি অবস্থান। শুক্রবার রাতভর শাওনকে নিয়ে থানা-পুলিশ করতে হয়েছে দুই ক্লাবকে।

রাত সোয়া ১০টায় মোহামেডান ক্লাব থেকে শাওনকে নিয়ে যায় মেরিনার্স। মোহামেডান কর্মকর্তাদের দাবি, এ সময় ক্লাবে ভাংচুরও করেছে মেরিনার্সের লোকজন। মেরিনার্স বলছে, তারা তাদের খেলোয়াড় নিয়ে এসেছে মোহামেডান ক্লাব থেকে, ভাংচুরের অভিযোগ সত্য নয়।

মতিঝিল থানার কর্মকর্তারা খেলোয়াড় শাওনের জবানবন্দি নিয়ে মেরিনার্সকে জানিয়েছে, সে মোহামেডানে খেলতে চায়। তারপর শাওনকে মোহামেডানের কর্মকর্তাদের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

jagonews24

শনিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে মেরিনার্সের সহ-সভাপতি আলমগীর কবির অভিযোগ করেন, ‘শাওনকে অপহরণ করা হয়েছিল। তার সঙ্গে আমাদের ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকায় চুক্তি হয়েছে। ২ লাখ টাকা অগ্রিমও নিয়েছে। শাওন মোহামেডান ক্লাবে আছে-জানতে পেরে আমাদের ক্লাবের কর্মকর্তারা গিয়ে তাকে উদ্ধার করেছেন। উদ্ধার হয়ে খেলোয়াড় নিজে গিয়েছিল অপহরণ নিয়ে থানায় জিডি করতে। কিন্তু অদৃশ্য কারণে থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন শাওন মোহামেডানে খেলবে বলেছেন।’

মোহামেডান অফিসিয়ালরা সাংবাদিকের দেখিয়েছেন, কোথায় কোথায় মেরিনার্সের কর্মকর্তারা ভাংচুর করেছেন। খেলোয়াড়দের ক্যান্টিন, আবাসন কক্ষ ভাংচুরের অভিযোগ করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মোহামেডান।

তবে মোহামেডান এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেয়নি। বিকেলে গণমাধ্যমকর্মীরা ক্লাবে গেলে মোহামেডানের পরিচালক জামাল রানা জানিয়েছেন, ‘এ বিষয়ে ক্লাবের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেবেন। আমি শুধু বলব ক্লাব নিয়ে কোন ঝামেলা থাকলে আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করা যেতো। মোহামেডানের মতো ঐতিহ্যবাহী ক্লাবের ভেতরে এসে ভাংচুর করে খেলোয়াড় নিয়ে যাওয়া গ্রহণযোগ্য নয়। আমরা এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। ’

দেশের হকি মাঠের চেয়ে টেবিলে গরম থাকে সবসময়। তিন বছর আগে হওয়া লিগের সমাপ্তি সুখকর ছিল না। মোহামেডান ও মেরিনার্সের মধ্যে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি শেষই হয়নি রেফারির সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে। প্রায় ৬ মাস পর ফেডারেশন মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে। তিন বছর পর হকি দলবদল শুরুর দুই দিন আগে সেই মোহামেডান-মেরিনার্সকে ঘিরে আবার উত্তেজনা। এক কথায় হকি যেখানে শেষ হয়েছিল, তিন বছর পর সেখান থেকেই শুরু হচ্ছে।

আরআই/এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]