ঘোড়ার গাড়িতে চড়ে দলবদলে মেরিনার্স

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:০৩ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

রোববার হকির দলবদলের প্রথমদিন মওলানা ভাসানী স্টেডিয়াম সরগরম করে রেখেছিল আবাহনী। সমর্থকদের স্লোগানের মধ্যে সাবেক চ্যাম্পিয়ন ক্লাবটি তাদের খেলোয়াড় নিবন্ধন করিয়েছে। মঙ্গলবার দলবদলের তৃতীয় দিনে আবাহনীকে ছাড়িয়ে গেল বর্তমান রানার্সআপ মেরিনার ইয়াংস ক্লাব।

আরামবাগ কালভার্ট রোডে অবস্থিত ক্লাব থেকে মেরিনার্স কর্মকর্তারা তাদের খেলোয়াড়দের মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে নিয়ে আসেন ঘোড়ার গাড়িতে। তিনটি ঘোড়ার গাড়ির সঙ্গে ছিল একদল সমর্থক ও বাদ্যবাদক দল।

প্রায় তিন বছর পর হকি মৌসুম শুরুর আগে দলবদল ঘিরে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মোহামেডান ও রানার্সআপ মেরিনার্সের মধ্যে উত্তেজনা গড়িয়েছে থানা-পুলিশ ও আদালত পর্যন্ত। মোহামেডান তাদের শীর্ষ ছয় খেলোয়াড়কে প্রথমদিন কমিশনে দলবদল করালেও সে পথে হাঁটেনি মেরিনার্স। তারা ঢাক-ঢোল পিটিয়ে উৎসব আমেজেই খেলোয়াড়দের নিবন্ধন করিয়েছে।

merinar Hockey

১৬ জন খেলোয়াড় রেজিস্ট্রেশন করানোর পর ক্লাবটির নতুন কোচ মামুনুর রশিদ বলেন, ‘খুব ভালো দল হয়েছে। দেশি যাদের নেয়া হয়েছে তারা অনেক ভালো। অভিজ্ঞদের সঙ্গে কয়েকজন প্রতিভাবান খেলোয়াড়ও আছে। ভালো বিদেশিও আনা হবে। আমরা শিরোপার জন্যই দল তৈরি করেছি।’

আশরাফুল, শাওন, কৌশিক ও সারওয়ার, নিলয়, নাইম, মাহবুব, মিমোরা দল ছাড়ার পরও কোচ আশাবাদী নতুন যাদের নিয়েছেন তাদের নিয়ে। মেরিনার্স বাহিনী কোটা পূরণ করেছে মামুনুর রহমান চয়ন, বিপ্লব কুজুর, সোহানুর রহমান সবুজ, মিলন হোসেন ও ফজলে রাব্বিকে দিয়ে।

মোহামেডানের সাইফুদ্দিন, সোনালী ব্যাংকের মেহেদী হাসান লিমন, ইরফানুল হক, ফজলে হোসেন রাব্বী, ভিক্টোরিয়ার সাদিকুল ইসলাম মিরাজ, খলিলুর রহমান, বিকেএসপির আশরাফ জামান লিমন, শাহরুখ আহমেদ, সহিদুর রহমান সাজু ও আজাদ স্পোর্টিং ক্লাবের পারভেজ হোসেন পাপ্পুকে নিয়ে দল সাজিয়েছে মেরিনার্স ইয়াংস ক্লাব।

আরআই/আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]