প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নিয়মিত জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার দেয়ার উদ্যোগ

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ০৮ জুন ২০২২

গত ১১ মে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছিলেন জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার না জমিয়ে প্রতি বছর প্রদান করার। ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

ওই দিন ২০১৩ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ৮ বছরের জমে থাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়েছিল। দেশের ক্রীড়ায় গৌরবময় অবদানের জন্য ৮৫ জনকে প্রদান করা হয়েছিল এই পুরস্কার।

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান নিয়মিত করতে হলে এখন একসঙ্গে ২০২১ ও ২০২২ সালের পুরস্কারও প্রদান করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সেই উদ্যোগও নিয়েছে।

এ বিষয়ে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব পরিমল সিংহ জাগো নিউজকে বলেছেন, ‘জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের বিষয়টি দেখে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। তারা পরের পুরস্কার প্রদানের জন্য ইতিমধ্যে কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে। জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য আবেদনও আহ্বান করেছে মন্ত্রণালয়। আমাদেরও চিঠি দেওয়া হয়েছে। আমরা সংশ্লিষ্ট সব স্থানে সেই চিঠি প্রেরণ করেছি।’

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়সূত্রে জানা গেছে, ‘জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার ২০২০ ও ২০২১ সালের জন্য মঙ্গলবার তারা আবেদন আহ্বান করেছে। আগ্রহী ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকদের নির্ধারিত ফরম পূরণ করে প্রয়োজনীয় প্রমাণাদিসহ সংশ্লিষ্ট ফেডারেশনের মাধ্যমে কিংবা সরাসরি অথবা ডাগযোগে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে আবেদন করতে বলা হয়েছে।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের মাধ্যমে ২০২০ ও ২০২১ সালের জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের আবেদনপত্র প্রেরণ করা হয়েছে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ক্রীড়া পরিদপ্তর, ক্রীড়া ফেডারেশন, ক্রীড়া অ্যাসোসিয়েশন এবং সব জেলা ক্রীড়া সংস্থায়।

১৯৭৬ সাল থেকে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান করে আসছে। প্রয়াত সাঁতারু ব্রজেন দাসসহ প্রথম বছর ৮ জনকে প্রদান করা হয়েছিল জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার। আর সর্বশেষ ২০২০ সালে পুরস্কার পেয়েছেন শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালসহ ৮ জন।

১৯৭৬ সাল থেকে ৬ বছর জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদানের পর বড় একটা গ্যাপ পড়েছিল ১৯৮২ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত। টানা ১৪ বছর জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান করা হয়নি। ১৯৯৬ সালে পূনরায় শুরু হয় ক্রীড়াক্ষেত্রের সবচেয়ে বড় ও মর্যাদার পুরস্কার প্রদান। ১৯৭৬ থেকে ১৯৮১ এবং ১৯৯৬ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ৩১৪ জনকে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান করেছে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার।

আরআই/আইএইচএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।