টানা ৩৬ ম্যাচ ৬ টুর্নামেন্ট জয়, তবুও পা মাটিতে শিয়াটেকের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৯ পিএম, ২৯ জুন ২০২২

সেরেনা উইলিয়ামসকে আগেই টপকে গিয়েছিলেন। উইম্বলডনের প্রথম রাউন্ডে ভেনাস উইলিয়ামসকেও টপকে গেলেন ইগা শিয়াটেক। এ নিয়ে টানা ৩৬টি ম্যাচ জিতলেন বিশ্বের এক নম্বর নারী টেনিস খেলোয়াড়। তবু পা মাটিতেই রাখলেন তিনি। উইলিয়ামস বোনদের সঙ্গে তুলনা করতে নারাজ পোল্যান্ডের এই টেনিস তারকা।

২০১৩ সালে টানা ৩৪টি ম্যাচ জিতেছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। ২০০০ সালে টানা ৩৫টি ম্যাচ জিতেছিলেন ভেনাস উইলিয়ামস। টানা ম্যাচ জয়ে দুই বোনকে ছুঁয়েছিলেন উইম্বলডন শুরুর আগেই। টানা ৩৫টি ম্যাচ জয়ের পথে ছয়টি শিরোপা জিতেছিলেন শিয়াটেক। পোল্যান্ডের টেনিস খেলোয়াড় রয়েছেন স্বপ্নের ছন্দে। ২১ বছরের এই খেলোয়াড় অবশ্য টানা ৩৬টি ম্যাচ জয়ের পরও উইলিয়ামস বোনেদেরই এগিয়ে রাখছেন নিজের চেয়ে।

শিয়াটেক বলছেন, ‘এখনও সেরেনা বা ভেনাসের দিকে দেখলে মনে হয়, ওরা কিংবদন্তি। আমি ও পর্যায়ে পৌঁছাতে পারিনি। সাধারণ খেলোয়াড়। ওরা সর্বকালের সেরাদের মধ্যে থাকবে। টানা জয়ের পরিসংখ্যান দিয়ে উইলিয়ামস বোনদের সঙ্গে আমার তুলনার কোনও অর্থ হয় না।’

তুলনায় রাজি না হলেও নিজের ধারাবাহিকতা নিয়ে খুশি শিয়াটেক। বলেছেন, ‘প্রতিটা ম্যাচেই আমাদের প্রচুর ধকল নিতে হয়। তাও ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারায় খুশি। আমার প্রধান লক্ষ্যই হল ধারাবাহিকতা বজায় রাখা। জানি না কত দিন এ ধারাবাহিকতা বজায় রাখা সম্ভব হবে। যত বেশি সম্ভব ম্যাচ এবং প্রতিযোগিতা জিততে চাই। তবে আমি সত্যিই খুশি। নিজের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছি।’

বিশ্বের এক নম্বর নারী খেলোয়াড় উইম্বলডনে কেমন ফল আশা করছেন? শিয়াটেক বলেন, ‘এটা গ্র্যান্ড স্ল্যাম। প্রত্যাশার চাপ থাকে অনেক। তার মধ্যেই ভাল পারফর্ম করার চেষ্টা করতে হয়। আমি বেশি ভাবি না। ভাল খেলার চেষ্টা করি। নিজের দৈনিক সূচি বা খেলায় কোনও পরিবর্তন করি না।’

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]