সফটওয়্যার পেশাজীবী হিসেবে বৃত্তি পেতে চাইলে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩৪ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

সফটওয়্যার পরীক্ষণে দক্ষ পেশাজীবী গঠনে বৃত্তি ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বাংলাদেশি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান পিপল এন টেক। বিশেষ কর্মসূচির আওতায় ২০০ জনকে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে বলে সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী আবুবকর হানিপ।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বেসিস মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, প্রযুক্তিখাতে দক্ষ পেশাজীবী তৈরিতে ১০০ জন অভিবাসন প্রত্যাশী এবং ১০০ জন স্থানীয় প্রকৌশলীকে বৃত্তি প্রদান করা হবে।

আবুবকর হানিপ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে ৫ হাজার বাংলাদেশিকে আমরা এই প্রশিক্ষণ দিয়েছি যাদের মধ্যে অন্তত ৫০০ জন ম্যানেজার লেভেলে চাকরি করছেন। ‘অড জব’ ছেড়ে তারা এখন মাসে ১০ হাজার ডলার বা তার চেয়ে বেশি বেতনে চাকরি করছেন।’ তারা মাসে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা দেশে পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি জানান, এ বছর তার প্রতিষ্ঠান যুক্তরাষ্ট্রে ১০ লাখ ডলারের বৃত্তি দিয়েছে। এবার বাংলাদেশে বৃত্তি ঘোষণা করা হলো। আমাদের প্রতিষ্ঠানের বাংলাদেশ শাখা থেকে এখন পর্যন্ত ২ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তারা এখন দেশ-বিদেশে ভালো চাকরি করছেন।

আবুবকর হানিপ বলেন, এই বৃত্তির (প্রতিটি) আর্থিক মূল্য ৪ হাজার ডলার। যা আমরা দেশের স্বার্থে বৃত্তি হিসেবে দিয়ে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দিয়ে বৃত্তি প্রাপ্তদের যোগ্য করে তুলবো।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রযুক্তিখাতের এই বৃত্তিতে আবেদনের যোগ্যতা হিসেবে স্থানীয় পেশাজীবীদের ক্ষেত্রে কম্পিউটার বিজ্ঞানে স্নাতক অথবা সংশ্লিষ্ট খাতে দুই বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। আর যারা যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হিসেবে কাজ করতে চান তাদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা ন্যূনতম উচ্চমাধ্যমিক পাশ।

আবেদন প্রক্রিয়ার পরে সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে যোগ্যদের বাছাই করে বৃত্তি দেয়া হবে। চার মাস মেয়াদি ‘সফটওয়্যার টেস্টার ইঞ্জিনিয়ার বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ১২ ডিসেম্বর (বুধবার) থেকে অনলাইনে আবেদন করা যাcche এই piit.us ঠিকানায়। আবেদন গ্রহণ করা হবে আগামী ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত।

এ ছাড়া ০১৭৯৯৪৪৬৬৫৫ নম্বরে ফোন করেও বৃত্তি সম্পর্কে জানা যাবে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন পিপল এন টেক-এর উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন, পরিচালক লায়ন মো. ইউসুফ খানসহ অনেকে।

এএ/এমআরএম/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :