সামাজিক মাধ্যম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি ট্রাম্পের

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০৮ পিএম, ২৮ মে ২০২০

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই একের পর এক বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য সমালোচনার মুখে পড়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বেফাঁস মন্তব্য আর ভুলভাল কর্মকাণ্ডের জন্য হাসির খোরাক হয়েছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এবার সবকিছু ছাপিয়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলেন ট্রাম্প। এবার সামাজিক মাধ্যম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি নির্বাচন নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দুটি টুইট করেছিলেন। ওই টুইটগুলোর নিচে ‘ফ্যাক্ট চেকিং ট্যাগ’ সেঁটে দিয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষ।

ট্রাম্প কোনরকম তথ্যপ্রমাণ না দিয়ে টুইট করেছিলেন যে, ডাকযোগে পাঠানো ব্যালটপত্রে যে ব্যাপক কারচুপি হবে এটা অস্বীকার করার কোন পথই নেই।

টুইটার এই পোস্টের সাথে একটি সতর্কবার্তা জুড়ে দিয়েছে এবং এর সাথে একটি পেজ যুক্ত করে দিয়েছে যাতে ব্যাখ্যা করা হয়েছে ট্রাম্পের এই দাবি ভিত্তিহীন। ট্রাম্পের আরও একটি টুইটের ব্যাপারেও প্রকৃত খবর যাচাই করার আহ্বান জানিয়েছে টুইটার।

টুইটারের এমন পদক্ষেপের পরেই সামাজিক মাধ্যম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

কয়েক বছর ধরেই টুইটারের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিতর্কিত টুইট পোস্ট করা নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। এসব টুইটে ট্রাম্প তার রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছেন এবং ষড়যন্ত্র তত্ত্ব বলে অনেক কিছু উড়িয়ে দিয়েছেন।

তবে এবারই প্রথম প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এমন পদক্ষেপ নিল টুইটার। সম্প্রতি টুইটারের পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে যে, তাদের সাইটে মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিকর তথ্য দিলে তারা সতর্কবার্তা দিয়ে লেবেলের ব্যবহার আরও বাড়াবে। কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ক্ষেত্রে তারা অনেকটা দেরিতেই এ ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে।

টিটিএন/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]