স্বল্প খরচে অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে গ্লোবাল প্লাটফর্মে ‘বেস্ট এইড’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ২০ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৯:১৬ পিএম, ২০ জুন ২০২১

‘ইমাজিন ইফ বাংলাদেশ’ ফাইনালে দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক বাংলাদেশি স্টার্টআপ ‘বেস্ট এইড’। স্বল্প খরচে অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে গ্লোবাল প্লাটফর্মে জায়গা করে নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

দীর্ঘ তিন মাস মেন্টরশিপের পর ৬ জুন অনুষ্ঠিত হয় আন্তর্জাতিক ইনোভেশন ফোরাম আয়োজিত এক্সেলেটর প্রোগ্রাম ‘ইমাজিন ইফ বাংলাদেশ’র গ্র্যান্ড ফাইনাল।

সেখানে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে ডিজিটাল স্বাস্থ্যখাত নিয়ে কাজ করা স্টার্টআপ ‘বেস্ট এইড’ দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছে। প্রথম অবস্থান ভারতের স্টার্টআপ ‘কসকই’ এবং দ্বিতীয় রানার আপ বাংলাদেশি আরেক স্টার্টআপ ‘অক্সিজেট’।

ইনোভেশন ফোরামের ফাইনাল চলতি বছরের নভেম্বরে বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

বেস্ট এইডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিব মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেয়া আমাদের মূল লক্ষ্য। গ্রামের প্রতিটি মানুষ যেন স্বল্পমূল্যে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারে এটাই আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। তাছাড়া আমরা যখন কাজ করছিলাম তখন দেখেছি অ্যাম্বুলেন্স এবং আইসিইউ’র অভাব। তাই স্বল্প খরচে সবার মাঝে অ্যাম্বুলেন্স সেবা পৌঁছে দিতে আমরা বাইক অ্যাম্বুলেন্স তৈরি করছি, যা চলবে সোলার বিদ্যুতের মাধ্যমে। এই অ্যাম্বুলেন্স শুধু রোগী পরিবহন করবে না, এটা একটি এইচডিইউ ফ্যাসিলেটেড অ্যাম্বুলেন্স হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অ্যাম্বুলেন্সে ওঠামাত্র একজন রোগী টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে আমাদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে চলে যাবেন হাসপাতাল পৌঁছানো পর্যন্ত। প্রাথমিক কোনো চিকিৎসা প্রয়োজন হলে তা দেবেন প্যারামেডিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বাইকচালক।

অ্যাম্বুলেন্স বানানোর কাজ জুনেই শেষ হবে বলে জানান বেস্ট এইডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘অ্যাম্বুলেন্সের কাজ শেষ হলেই আমরা পোর্টেবল আইসিইউ নিয়ে কাজ শুরু করব। এতে গ্রামের মানুষের আইসিইউ প্রয়োজন হলে আর ঢাকা আসতে হবে না। আইসিইউ চলে যাবে বিভাগে বিভাগে। দুটি প্রকল্প বাস্তবায়নে আইডিয়া প্রকল্প এবং সেখানের প্রতিটি মানুষ আমাদের খুব কাছ থেকে সাহায্য করছে। আমাদের প্রতিনিয়ত খবর নিচ্ছেন তারা।’

বেস্ট এইড বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশনের আইডিয়া প্রকল্পের একটি পোর্টফলিও স্টার্টআপ। তাছাড়া ওয়াইওয়াই ভ্যাঞ্চারের ইনভেস্টমেন্ট পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে বেস্ট এইড।

আইএইচআর/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]