দেশের নারী উদ্যোক্তাদের যুক্তরাষ্ট্রে কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার সুযোগ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০০ পিএম, ১২ মার্চ ২০২০
ফাইল ছবি

নারী উদ্যোক্তা, ব্যবসা ব্যবস্থাপক, সামাজিক উদ্ভাবক, নীতিনির্ধারক এবং নাগরিক সমাজ নেতৃবৃন্দ যাদের কমপক্ষে সাত বছরের কাজের অভিজ্ঞতা আছে, তাদের সারা বিশ্বের অন্যান্য নারী নেতৃত্বের সঙ্গে হাওয়াইতে ১৩ দিনের একটি কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার সুযোগ দিচ্ছে ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস। এ কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার জন্য আবেদনপত্র চাওয়া হয়েছে। আবেদন জমা দেওয়ার শেষ সময় ৪ এপ্রিল।

এই সেমিনারে সারা বিশ্বের নারী উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকেরা ১৩ দিনের পেশাগত প্রশিক্ষণ, সংলাপ এবং ভ্রমণ কর্মসূচিতে একত্র হবেন, যা নারীদের নেতৃত্বের দক্ষতা ও উদ্যোক্তা সামর্থ্য বৃদ্ধি করবে; হাতেকলমে উদ্ভাবনী উদ্যোক্তাসুলভ প্রচেষ্টা অনুসন্ধান করবে; নিজের শক্তিমত্তা সম্পর্কে আত্মবিশ্বাস গড়ে দেবে এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক বিস্তৃত করবে।

সেমিনার চলাকালে অংশগ্রণকারীরা বেশ কয়েকটি কর্মশালায় অংশ নেবেন, যেগুলোর বিষয়বস্তু নেতৃত্ব ও উদ্যোক্তাসুলভ মনোভাব।

অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকে একজন করে স্থানীয় নারী নেতৃত্বের সঙ্গে যুক্ত হবেন এবং ফিরে এসে একটি নেক্সট জেনারেশন সার্ভিস প্রজেক্টে উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের একটি নির্বাচিত গ্রুপের মেন্টর হিসেবে কাজ করবেন। চেঞ্জিং ফেসেস সেমিনারে একই সঙ্গে থাকবে প্রশিক্ষণ এবং পরামর্শ অধিবেশন, যাতে অংশগ্রহণকারীরা তাদের ব্যবসা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্যে একটি নির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে পারেন। চেঞ্জিং ফেসেস সেমিনারে অংশগ্রহণকারীরা #galswithLEI ফোরামে প্যানেলিস্ট ও মডারেটর হিসেবে অংশ নেবে। ফোরামটি নারী ও মেয়েদের মধ্যে নেতৃত্ব, উদ্যোক্তাসুলভ মনোভাব ও উদ্দীপনা তৈরিতে কাজ করে।

কর্মসূচিতে আবেদনের জন্য ভিজিট করুন: www.eastwestcenter.org/changingfaces.

কারা আবেদন করতে পারবেন
চেঞ্জিং ফেসেস সেমিনার সেই সব নারী সত্ত্বাধিকারী ও সামাজিক উদ্যোক্তাকে খুঁজছে যাদের মধ্যে নেতৃত্বের গুণাবলী ও নিজ জনগোষ্ঠীতে অন্যদের মধ্যে পরিবর্তন সাধন বা অন্যকে প্রভাবিত করার সামর্থ্য বিদ্যমান। উদ্ভাবনী উদ্যোক্তা, ব্যবসা ব্যবস্থাপক, সরকারি ও শিল্পখাতের নীতিনির্ধারক এবং সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ যাদের কমপক্ষে সাত বছরের কাজের অভিজ্ঞতা আছে এবং যারা তাদের নিজ নিজ জনগোষ্ঠীর মধ্যে নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেন, তারা আবেদন করার উপযুক্ত। উদ্ভাবনী ব্যক্তি বলতে সাধারণত তাদেরকে বোঝাবে যারা একটি মৌলিক ধারণা বা পণ্য তৈরি করেছেন অথবা যারা একটি মৌলিক ধারণা বা ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটানোর সামর্থ্য রাখেন বলে মনে করা হয়।

আবেদনকারীদের অবশ্যই একটি পেশাদার পরিবেশে ইংরেজিতে যোগাযোগ করতে জানতে হবে। যেসব প্রার্থীর আন্তর্জাতিক যোগাযোগ তৈরি ও পেশাগত উন্নয়নের সুযোগ সীমিত এবং যারা কর্মসূচির ব্যয় ভাগাভাগিতে আগ্রহ প্রকাশ করবে তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। চূড়ান্তভাবে নির্বাচিতদের টেলিফোনে সাক্ষাৎকার নেওয়া হতে পারে।

এনএফ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]