গণমাধ্যম

১৬৭ পত্রিকায় ৮ম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়িত

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘নিবন্ধিত পত্রিকার মধ্যে ১৬৭টির ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন হয়েছে।’ রোববার জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য শেখ এ্যানী রহমানের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব বলেন। এ সময় সংসদে তথ্যমন্ত্রী অনুপস্থিত থাকায় তার পক্ষে জবাব দেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন গণমাধ্যমবান্ধব সরকার ৮ম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ-২০১৩ ঘোষণার মাধ্যমে সংবাদকর্মীদের বেতন ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করেছে, যা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন হচ্ছে। ইতোমধ্যে ১৬৭টি পত্রিকায় ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ বাস্তবায়ন হয়েছে।’ অচিরেই ৯ম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড ঘোষণা করা হবে বলেও জানান তিনি। ভোলা-২ আসনের আলী আজমের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকাসহ সারাদেশে ৩ হাজার ১২৮টি নিবন্ধিত পত্রিকা রয়েছে। নিবন্ধিত পত্রিকার মধ্যে যারা নীতিমালা অনুসরণ করে পত্রিকা প্রকাশ করছে না, তাদের বিরুদ্ধে চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদফতর (ডিএফপি) মিডিয়া তালিকাভুক্তি বাতিল করতে পারে।’ এছাড়া সংশ্লিষ্ট জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ১৯৭৩ সালের ছাপাখানা ও প্রকাশনা (ঘোষণা ও নিবন্ধিকরণ) আইন অনুযায়ী ঘোষণাপত্র বাতিলের ব্যবস্থা করেন বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। রাজশাহী-৩ আসনের মো. আয়েন উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশে সরকারি বেতার কেন্দ্রের সংখ্যা ১৪টি। বেসরকারি ২৮টি এফএম বেতার কেন্দ্রের জন্য লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। তার মধ্যে ২৩টি এফএম বেতার কেন্দ্রের সম্প্রচার চলমান।’ তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়া ৩২টি কমিউনিটি রেডিওকে লাইসেন্স দেয়া হয়েছে। তার মধ্যে ১৭টি কমিউনিটি রেডিওর সম্প্রচার চলমান।’

আবেদনের প্রেক্ষিতে একটি কমিউনিটি রেডিওর লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

এইচএস/এমআরএম/পিআর