তথ্যপ্রযুক্তি

সেবা ভালো রাখার জন্য যা করলো ফেসবুক

চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এরই মধ্যে বিশ্বের অন্তত ১৯৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। এতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৬৬ হাজার ৭৫৯ জন। মারা গেছেন ২১ হাজার ১৪৮ জন।

এরই মধ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বাসা থেকে কাজের সুবিধা দিচ্ছে। আর বাসা থেকে কাজের ক্ষেত্রে অত্যন্ত জরুরি উন্নত মানের নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা।

এই পরিস্থিতিতে যদি ইন্টারনেট পরিসেবায় কোনো বাধা আসে, তবে অনেকেরই সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। এই কথা ভেবেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ইন্টারনেট পরিসেবা ঠিক রাখতে ভিডিও স্ট্রিমিং কোয়ালিটি কমাল ফেসবুক।

ইউরোপেও স্ট্রিমিং কোয়ালিটি কমিয়েছে ইউটিউব এবং অ্যামাজন।

ফেসবুক জানিয়েছে, ভিডিও কোয়ালিটি কমানোর কারণে বিশ্বের ইন্টারনেট পরিসেবার উপরে চাপ কমবে। প্রাথমিক ভাবে ভারত, ইউরোপ এবং লাতিন আমেরিকার স্ট্রিমিং বিট রেট কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রাম।

ফলে ফেসবুকের নিউজ ফিডে এখন যত ভিডিওই আসবে, তার কোয়ালিটি কম হবে। যাতে বেশি নেট খরচ না হয় এবং ট্রাফিকের চাপ সামাল দেওয়া যায়।

এই মহামারির সময় গ্রাহকরা যেন ফেসবুক ব্যবহার করে প্রিয়জনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে পারেন তা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

এএ