দেশজুড়ে

জয়পুরহাটে নতুন করে বাবা-ছেলেসহ ৮ জন করোনায় আক্রান্ত

জয়পুরহাটে নতুন করে বাবা-ছেলেসহ আটজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৩০ জন। শনিবার (২৩ মে) সকালে আরও চারজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ নিয়ে জেলায় ৩৭ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন। জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার একই গ্রামের বাবা-ছেলেসহ চারজন ও ক্ষেতলাল উপজেলার চারজন রয়েছেন।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টার থেকে পাঠানো রিপোর্টে ১১৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৭ জনের নেগেটিভ হলেও আটজনের শরীরে করোনা ধরা পড়ে।

আক্রান্তরা হলেন- সদর উপজেলার ভাদসা পালি গ্রামের বাবা-ছেলে, ২৫ বছরের এক যুবক, ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি, ক্ষেতলাল উপজেলার তারাকুল গ্রামের ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, বড়াইল গ্রামের ২৫ বছরের নারী, দৌলতপুর গ্রামের ৩৮ বছরের নারী ও সূর্য্যবান গ্রামের ৪০ বছরের এক ব্যক্তি।

জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা জানান, আক্রান্তরা ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টারে পাঠানো হয়। সেখান থেকে পাঠানো রিপোর্টে ১১৫ জনের মধ্যে আটজনের করোনা শনাক্ত হয়। আক্রান্তদের আক্কেলপুর উপজেলার গোপীনাথপুর ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির আইসোলেশন ইউনিটে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

রাশেদুজ্জামান/আরএআর/এমএস