বিনোদন

করোনা জয় করে বাসায় ফিরলেন প্রবীর মিত্র

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার রঙিন নবাব খ্যাত অভিনেতা প্রবীর মিত্র। অনেকটা গোপনেই চিকিৎসা হয়েছে তার৷ সুস্থও হয়েছেন তিনি৷ গতকাল মঙ্গলবার, ৭ জুলাই করোনা মুক্ত হয়ে বাসায় ফিরেছেন তিনি।

প্রবীর মিত্র’র বড় ছেলের স্ত্রী সোনিয়া ইসলাম জাগো নিউজকে জানান, গেল ২২ জুন করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় বর্ষীয়ান চলচ্চিত্র অভিনেতা প্রবীর মিত্রের শরীরে। এরপর থেকে তিনি ভর্তি ছিলেন হাসপাতালে।

সোনিয়া বলেন, 'ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞতা যে বাবাকে সুস্থ করে বাড়ি আসতে পেরেছি। খুব দুশ্চিন্তার মধ্যে ছিলাম। একে তো বয়স্ক মানুষ। তার উপর নানা রোগে আক্রান্ত ছিলেন। খুব ভয় পেয়েছিলাম সবাই।'

তিনি আরও বলেন, 'গত মাসে আমাদের এক আত্মীয়ের বাসায় ছিলেন বাবা। সেখান থেকে বাসায় ফেরার পর হঠাৎ তার জ্বর আসে। বুকে কফ জমে। পরে জানতে পারি ওই আত্মীয়ের বাসার সবাই করোনা পজিটিভ। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের বাসায় সবার পরীক্ষা করা হলে শুধু বাবার পজিটিভ আসে।'

'রেজাল্ট পেয়েই বাবাকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করাই। ভাগ্য সহায় ছিলো। খারাপ কিছু হয়নি। শুধু একবার অক্সিজেন সাপোর্ট লেগেছিল। এরপর তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেছেন'- যোগ করেন প্রবীর মিত্রের পুত্রবধূ।

‘দীর্ঘদিন ধরে হাঁটুর আর্থ্রাইটিসসহ নানা অসুখে আক্রান্ত প্রবীর মিত্র। তাই লাইট-ক্যামেরার ঝলমলে দুনিয়া থেকে সরে আছেন তিনি।

৭৫ বছর বয়সী এই অভিনেতা দীর্ঘ ক্যারিয়ারে ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘মিন্টু আমার নাম’, ‘জয় পরাজয়’, ‘প্রতিজ্ঞা’, ‘প্রতিহিংসা’ ও ‘রঙিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা’সহ ৩শ’রও বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রের বর্ণিল ক্যারিয়ারে স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

এলএ/এমআরএম