আন্তর্জাতিক

পশ্চিমবঙ্গে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী, বাড়ছে আতঙ্ক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে করোনার সংক্রমণের হার এখন আশঙ্কাজনভাবে ঊর্ধ্বমুখী। সোমবার সেখানে একদিনে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৪৩৫ জন। অবশ্য গতকাল রোববারের ১ হাজার ৫৬০ এর তুলনায় কিছুটা কম। তবে পশ্চিমবঙ্গে কিছুতেই থামানো যাচ্ছে না করোনার সংক্রমণ, উদ্বেগ বাড়ছে।

সোমবার রাজ্যটিতে নতুন করে মারা গেছেন ২৪ জন। করোনা পরীক্ষার তুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে, তাতে উদ্বেগ কমছে না পশ্চিমঙ্গ রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগের। এর পাশাপাশি প্রাদেশিক রাজধানী শহর কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলোতে করোনার সংক্রমণ নিয়েও দুশ্চিন্তা বাড়ছেই।

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, রাজ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ১৮ মার্চ। গত ২৫ জুনের আগ পর্যন্তও দৈনিক আক্রান্ত বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশের এর নীচে থাকলেও বিগত দুই সপ্তাহ ধরে তা বাড়ছে। রবিবার সেই হার ছিল ১৩ দশমিক ৩ শতাংশে। আরও সোমবার তা বেড়ে হয়েছে প্রায় ১৩ দশমিক ৯ শতাংশ।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, গতদিন করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১০ হাজার ৩৫৯ জনের। রোববার এই সংখ্যাটা ছিল ১১ হাজার ৭০৯। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে প্রায় দেড় হাজারসহ রাজ্যে মোট শনাক্তের সংখ্যা ৩১ হাজার ৪৪৮; মোট মৃত্যু ৯৫৬ জনের।

সংক্রমণের এমন ঊর্ধ্বগতি শুরু হওয়ার গত বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে নতুন করে লকডাউন সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা আরও কড়াকড়ি করা হয়েছে। এর ফলে আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমতে পারে বলে অনেকে মনে করলেও এখনই সেটা বলার সময় হয়নি বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

//

কলকাতায় দৈনিক নতুন করোনা সংক্রমণInfogram

কলকাতা ও তার লাগোয়া দুই চব্বিশ পরগনা, হাওড়া ও হুগলি—এই চার জেলা নিয়েই করোনা সংক্রমণের উদ্বেগ সবচেয়ে বেশি। সোমবার একদিনে কলকাতায় নতুন আক্রান্ত সংখ্যা ৪১৮। রোববার এই সংখ্যা ছিল ৪৫৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে যে ২৪ জন কোভিড-১৯ রোগী মারা গেছেন এর মধ্যে ১০ জনই কলকাতার।

এছাড়া গতদিনে উত্তর চব্বিশ পরগনায় ৩৬৩, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনায় ৯৫, হাওড়ায় ১৬৮ এবং হুগলিতে ৫৪ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। এদিকে উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলা এবং দক্ষিণবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুরের করোনা সংক্রমণের হার আশঙ্কাজনক।

গত ২৪ ঘণ্টায় দার্জিলিংয়ে ৭৩, মালদহে ৫৬, দক্ষিণ দিনাজপুরে ৩৭ এবং উত্তর দিনাজপুরে ১৪ জন নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। দক্ষিণবঙ্গের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত পূর্ব বর্ধমানে; ৪৯ জন। তবে স্বস্তির জায়গা একটাই; রাজ্যটিতে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাও বাড়ছে। মোট সুস্থ ১৯ হাজার ২১৩ জন। এর মধ্যে সোমবার সুস্থ হয়েছেন ৬৩২ জন। এখন রাজ্যটিতে সক্রিয় কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ১১ হাজার ২৭৯ জন। সুস্থতার হার ৬১ দশমিক ৯ শতাংশ। তবে দৈনিক নতুন আক্রান্ত ও সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যার মাঝেও আশঙ্কার খবর হলো রাজ্যটিতে ভাইরাসটির সংক্রমণ বেড়েই চলেছে।

এসএ